যে কোনো সময় ডিভোর্স হতে পারে ট্রাম্প-মেলানিয়ার! 

যে কোনো সময় ডিভোর্স হতে পারে ট্রাম্প-মেলানিয়ার! 
ছবি: সংগৃহীত

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের মধ্যে যে কোনো সময় ডিভোর্স হয়ে যেতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন যুক্তরাজ্যের শীর্ষস্থানীয় এক রিলেশনশীপ বিশেষজ্ঞ। তিনি বলছেন, এটা কেবল এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি স্টারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জানুয়ারিতে হোয়াইট হাউজ ত্যাগ করার পর থেকেই আলাদা অফিস গঠনের চেষ্টা করছেন মেলানিয়া ট্রাম্প। মূলত ডোনাল্ড ট্রাম্পের সংস্পর্শ থেকে পৃথক হতেই তার এ সিদ্ধান্ত। এমনকি সম্প্রতি অনুষ্ঠিত সুপার বল পার্টিতে সাবেক প্রেসিডেন্ট অংশ নিলেও উপস্থিত ছিলেন না তার স্ত্রী। যা তাদের মধ্যকার সম্পর্কের অবনতির ইঙ্গিত বহন করে।

এ বিষয়ে যুক্তরাজ্যের শীর্ষস্থানীয় সম্পর্ক বিশেষজ্ঞ নাদিয়া এসেক্স বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প ও মেলানিয়া ট্রাম্পের মধ্যে এখন কোনো মিল নেই। সাবেক ফাস্ট লেডি যে ট্রাম্পের পাশে থাকা পছন্দ করছেন না তা তার সাম্প্রতিক শারীরিক ভাষায় স্পষ্ট।

তাদের মধ্যে ডিভোর্স হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র মন্তব্য করে তিনি বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট থাকাকালীনই তিনি ডিভোর্স নিতে পারতেন। তাই আগামী নির্বাচনের আগে বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন করলে আমি অবাক হবো না।

মেলানিয়া ও ডোনাল্ড দুজনের কেউই তাদের সম্পর্কে সুখী নয়। তার মানে শিগগিরই কোর্টে বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন পড়তে পারে। পাশাপাশি আমি এটাও বিশ্বাস করি যে তাদের মধ্যে এখন কেবল নামেই বৈবাহিক সম্পর্ক আছে। অসুখী থাকার জন্য জীবন খুবই ছোট, বিশেষ করে কোনো সম্পর্কের ক্ষেত্রে, যোগ করেন নাদিয়া এসেক্স।

গত বছরের ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপর চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি ক্ষমতার কার্যকাল শেষে হোয়াইট হাউজ ত্যাগ করেন। একই দিন নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণ করেন জো বাইডেন। বর্তমানে ফ্লোরিডার একটি রিসোর্টে পরিবারসহ বসবাস করছেন ডোনাল্ড-মেলানিয়া জুটি।

ইত্তেফাক/এআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x