হুথি হামলায় সৌদিতে তেল উৎপাদন ব্যাহত, বিশ্ববাজারে বাড়লো দাম

হুথি হামলায় সৌদিতে তেল উৎপাদন ব্যাহত, বিশ্ববাজারে বাড়লো দাম
প্রতীকী ছবি।

সৌদি আরবের তেলক্ষেত্রে হুথি বিদ্রোহীদের হামলার পরপরই বিশ্ববাজারে বেড়ে গেল তেলের দাম। ক্রুড অয়েলের (অপরিশোধিত তেল) দাম ইতোমধ্যে প্রায় পাঁচ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ব্যারেলপ্রতি ৭১ ডলারে। গত ১৪ মাসের মধ্যে এই দাম সর্বোচ্চ। সোমবার (৮ মার্চ) এসব তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এপি। আরও জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রে তেলের দাম দুই শতাংশ বেড়েছে যা ২০১৮ সালের পর সর্বোচ্চ বৃদ্ধি।

গত রবিবার (৭ মার্চ) সৌদির রাস তানুরা তেলক্ষেত্রে হামলা চালিয়েছিল হুথিরা। তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে এ হামলায় সৌদির তেল উৎপাদন মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। তবে দেশটির দাবি, এতে তেমন কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। সৌদি জ্বালানি মন্ত্রণালয় এই হামলাকে ‘নাশকতামূলক কাজ’ উল্লেখ করে বলেছে, এতে শুধু সৌদি আরবকেই নয়, গোটা বিশ্বের জ্বালানি সরবরাহের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতাকে লক্ষ্যবস্তু বানানো হচ্ছে।

তেলের দাম বাড়তে থাকায় গত সপ্তাহে আশা করা হচ্ছিল, তেল রপ্তানিকারকদের জোট ওপেকের সদস্য ও এর মিত্র দেশগুলো উৎপাদনের বিধিনিষেধ শিথিল করে তেল সরবরাহ আরও মসৃণ করবে। তবে চাহিদার ঊর্ধ্বগতি সত্ত্বেও বেশিরভাগ নিষেধাজ্ঞাই বহাল রাখার সিদ্ধান্ত নেয় দেশগুলো।

এর আগে, ২০১৯ সালে সৌদির প্রধান তেল স্থাপনাগুলোতে হামলার পরদিনই বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম প্রায় ১৪ শতাংশ বেড়ে গিয়েছিল। অবশ্য ওই হামলার জেরে সৌদির দৈনিক তেল রফতানি প্রায় অর্ধেক কমে গিয়েছিল, বন্ধ হয়ে গিয়েছিল বিশ্বের প্রায় পাঁচ শতাংশ অপরিশোধিত তেল উৎপাদন। এবারের ধারাবাহিক হামলায় এখন পর্যন্ত অন্তত তেমনটা হয়নি।

ইত্তেফাক/এসএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x