উগ্রবাদী হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার ভয়ে রোজা রাখছেন না উইঘুর মুসলিমরা

উগ্রবাদী হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার ভয়ে রোজা রাখছেন না উইঘুর মুসলিমরা
ছবি: সংগৃহীত

চীনের জিনজিয়াং উইঘুর স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলে পবিত্র রমজান মাসে রোজা রাখতে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল আগে। এরপর নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হয়েছে। তবুও মুসলমানরা রোজা রাখা থেকে বিরত আছেন উগ্রপন্থী হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার ভয়ে।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) এ খবর দিয়েছে ইন্ডিয়া টাইমস। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রেডিও ফ্রি এশিয়াতে লেখা এক আর্টিকেলে শোহরেত হোশুর বলেছেন, চীন সরকার কর্তৃক আরোপিত ধর্মীয় নিপীড়ন ও বিধিনিষেধের কারণে বছরের পর বছর উইঘুর এবং অন্যান্য তুর্কি মুসলমানদের রমজান পালন করা নিষিদ্ধ ছিল। অঞ্চলটির নির্দিষ্ট কিছু অঞ্চলে মসজিদে প্রবেশাধিকার আরও কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয় এবং রেস্তোঁরাগুলিকে উন্মুক্ত থাকার আদেশ দেওয়া হয়।

আরো বলা হয়, উইঘুররা প্রায়শই রমজানের আগে এই প্রতিশ্রুতি দিতে বাধ্য হন যে তারা বৃহত্তর সম্প্রদায়ের জন্য উদাহরণ স্থাপনে জন্য প্রার্থনা করবেন না। আরএফএ সম্প্রতি তোককুযাক (তিউকেজাহেক) জনপদে এক পুলিশ কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করেছিল। তিনি বলেন, পর পর তিন বছর কঠোরভাবে নিষেধাজ্ঞার পরে ২০২০ সাল থেকে তার অঞ্চলে উপবাসের উপর নিষেধাজ্ঞাগুলি "হ্রাস" হয়েছিল।

কিন্তু নিষেধাজ্ঞা শিথিলের দাবি সত্ত্বেও একই পুলিশ অফিসার বলেছেন, তার পর থেকে তিনি এখনও কাউকে তার অঞ্চলে রোজা রাখতে দেখেননি। তিনি বলেন, কেউ রোজা রাখছে এমন অনুভব করিনি। আমি এমন কোনো ব্যক্তির মুখোমুখি হইনি যার সম্পর্কে আমি ভেবেছি যে সে রোজা রাখছে। তারা উগ্রবাদী হিসেবে চিহ্নিত হওয়া নিয়ে উদ্বিগ্ন।

ইত্তেফাক/এসএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x