মমতার মন্ত্রিসভায় মেদিনীপুর থেকেই সাত মন্ত্রী

পালটা চাপ দিতে শুভেন্দুকে বিরোধী নেতা করল বিজেপি
মমতার মন্ত্রিসভায় মেদিনীপুর থেকেই সাত মন্ত্রী
ছবি: সংগৃহীত।

নির্বাচন পরবর্তী মমতা, শুভেন্দু লড়াই চলছেই। শুভেন্দু অধিকারিকে চাপে ফেলতে দুই মেদিনীপুর ও সংলগ্ন ঝাড়গ্রাম এলাকা থেকে মমতা ব্যানার্জি সাত জনকে মন্ত্রী করলেন। পালটা মমতাকে হারিয়ে ‘জায়ান্ট কিলার’ হওয়া শুভেন্দু অধিকারিকে বিরোধী দলনেতা নির্বাচিত করল বিজেপি।

আগেই মমতা ব্যানার্জি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন। গতকাল সোমবার সৌমেন মহাপাত্র, মানস ভুঁইয়া, হুমায়ুন কবির, বীরবাহা হাঁসদা, শ্রীকান্ত মাহাতো, শিউলি সাহা এবং অখিল গিরি মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন। এর মধ্যে সৌমেন মহাপাত্র, মানস ভুঁইয়া পূর্ণ মন্ত্রী এবং বাকিদের পূর্ণ দায়িত্বপ্রাপ্ত রাষ্ট্রমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রমন্ত্রী করা হয়েছে। এর মধ্যে অখিল গিরি শুভেন্দু অধিকারির প্রবল প্রতিপক্ষ এবং শিউলি শাহা বিরোধী শিবিরের বলে চিহ্নিত। পাশাপাশি আট জন মহিলাকে মমতা মন্ত্রী তালিকায় স্থান দিয়েছেন।

মন্ত্রিসভায় মমতা নিজের হাতে স্বরাষ্ট্র ও পার্বত্যবিষয়ক, কর্মীবর্গ, প্রশাসনিক সংস্কার, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ, ভূমি সংস্কার ও উদ্বাস্তু পুনর্বাসন, তথ্য সংস্কৃতি ও উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তর রেখেছেন। পাশাপাশি মন্ত্রিসভায় বড় রদবদলও করেছেন। এদিন কলকাতার রাজভবনে ৪৩ জন মন্ত্রী শপথ নেন। শপথ বাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। মমতা বলেন, ‘২০ শতাংশ নতুন মন্ত্রী হয়েছেন। এটা বড় ব্যাপার।’

একদিকে যখন মমতার মন্ত্রিসভা গঠন হচ্ছে, অন্যদিকে রাজভবন থেকে কিছুটা দূরে হেস্টিংসে দলীয় কার্যালয়ে মমতাকে নির্বাচনে হারিয়ে দেওয়া শুভেন্দু অধিকারিকে বিরোধী দলনেতা নির্বাচিত করেন জয়ী ৭৭ জন বিধায়ক। তার নাম প্রস্তাব করেন মুকুল রায়। বিরোধী দলনেতা নির্বাচিত হওয়ার পর শুভেন্দু বলেন, ‘আমার অঙ্গীকার হলো, হিংসা মুক্ত বাংলা। শান্তির বাংলা। যে কোনো গঠনমূলক কাজে সরকারের সহযোগিতা করব। পাশাপাশি আমরা অত্যাচারের প্রতিবাদেও সরব হব। কোনো সিদ্ধান্ত শুভেন্দু একা নেবে না, সবাইকে নিয়ে চলবে।’ মমতার সমালোচনা করে শুভেন্দু বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে এই প্রথম কোনো ব্যক্তি বিধানসভা নির্বাচনে হারার পরেও মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন।’

ইত্তেফাক/এসএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x