বিহারের ডিএসপি হয়ে ইতিহাস গড়লেন মুসলিম তরুণী

বিহারের ডিএসপি হয়ে ইতিহাস গড়লেন মুসলিম তরুণী
রাজিয়া সুলতানা। ছবি: সংগৃহীত

ভারতের বিহার রাজ্য পুলিশের ডিএসপি হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করলেন ২৭ বছর বয়সী মুসলিম তরুণী রাজিয়া সুলতানা। রাজ্যটিতে পুলিশের এই পদে তিনিই প্রথম কোনো মুসলিম নারী। সম্প্রতি ৬৪তম বিহার পাবলিক সার্ভিস কমিশন পাস করেছেন তিনি। এর মধ্য দিয়ে বিহার পুলিশের ডিএসপি হিসেবে নিযুক্ত হতে চলেছেন। শুক্রবার (১১ জুন) খবর প্রকাশ করেছে খালিজ টাইমস ও ইন্ডিয়া টুডে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডিএসপি পদের জন্য ৪০ জন প্রার্থী ছিলেন। তাদের মধ্যে শেষ পর্যন্ত রাজিয়া সুলতানা নির্বাচিত হয়েছেন। ডিএসপি হওয়ার মধ্য দিয়ে মূলত নিজের দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্নকে বাস্তবে রপান্তরিত করলেন তিনি।

সাত ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট রাজিয়া সুলতানা। তিনি ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন দেখতেন পুলিশ অফিসার হবেন। পড়াশোনায় বরাবরই ভালো রাজিয়া প্রথমে বিপিএসই পরীক্ষা দিয়ে বিহার সরকারের ইলেকট্রিক ডিপার্টমেন্টের অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার পদে নিযুক্ত হন। বর্তমানে তিনি সেখানেই কর্মরত আছেন।

বিহারের গোপালগঞ্জ জেলার হাতুয়ার বাসিন্দা এই মুসলিম তরুণী বাবার চাকুরির সুবাদে ঝাড়খণ্ডের বোকারো থেকে স্কুলজীবন শেষ করেছেন। তার বাবা মোহাম্মদ আসলাম আনসারী বোকারো স্টিল প্ল্যানেটে স্টেনোগ্রাফার ছিলেন। ২০১৬ সালে তিনি মারা যান। এরপর থেকে তার মা সেখানেই বসবাস করছেন।

সংবাদমাধ্যমকে রাজিয়া বলেন, পুলিশ অফিসারের দায়িত্ব পালন করতে তিনি খুবই উদগ্রীব হয়ে আছেন। অনেক সময় সাধারণ মানুষ ন্যায়বিচার পান না। বিশেষ করে মহিলারা লজ্জার কারণে তাদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া অপরাধের কথা বলতে লজ্জা পায়। তাদের সুবিচার নিশ্চিত করতে আমার নজর থাকবে।

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x