ফিলিস্তিনি কারাগারে নির্যাতনে প্রেসিডেন্টের সমালোচকের মৃত্যুর অভিযোগ

ফিলিস্তিনি কারাগারে নির্যাতনে প্রেসিডেন্টের সমালোচকের মৃত্যুর অভিযোগ
নিজার বানাতের পরিবার। ছবি: রয়টার্স

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের (পিএ) নিরাপত্তা বাহিনী কর্তৃক আটক হওয়ার পর আজ বৃহস্পতিবার মৃত্যুবরণ করেছেন দেশটির এক সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী। তিনি আন্তর্জাতিক বিশ্বের সমর্থিত পিএ সরকারের কট্টর সমালোচক হিসেবে পরিচিত ছিলেন। অভিযোগ উঠেছে, আটকের পর তার ওপর ব্যাপক নির্যাতন করা হয়েছিল। খবর প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

স্বজনদের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতরাতে অধিকৃত পশ্চিম তীরের হেব্রন শহরে ফিলিস্তিনি নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে আটক হন পিএ সরকারের কট্টর সমালোচক নিজার বানাত। এ সময় তার ওপর ব্যাপক নির্যাতন চালানো হয়েছে।

পিএ কর্তৃক নিয়োগকৃত শহরের গভর্নর বলেছেন, আটকের পর স্বাস্থ্য খারাপ হওয়ার কারণেই মৃত্যুবরণ করেছেন নিজার বানাত। তবে কোনো কারণ ব্যাখ্যা করেননি তিনি।

৪৩ বছর বয়সী বানাত একজন পরিচিত সমাজকর্মী। তিনি ফিলিস্তিন সরকারের দুর্নীতি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা করতেন। বিশেষ করে প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস কর্তৃক ফিলিস্তিনের দীর্ঘ প্রতিক্ষিত নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়া, যেটি গত মে মাসে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল এবং ইসরায়েলের সঙ্গে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন চুক্তি নিয়ে বেশ সরব ছিলেন তিনি।

এই সমাজকর্মী সংসদ নির্বাচনে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা নিয়েছিলেন। একই বাড়িতে বসবাসরত নিজারের কাজিন ২১ বছর বয়সী হুসেইন বানাত বলেন, রাতে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা যখন ঘরের দরজা ও জানালা ভাঙছিলেন তখন সেই আওয়াজে তাদের ঘুম ভেঙে যায়। সে সময় তাৎক্ষণিকভাবে বানাতের ওপর আঘাত করতে থাকে পিএ বাহিনী।

জানালা ভাঙার জন্য যে লোহা ব্যবহার করেছিল সেটি দিয়েই তারা বানাতকে আঘাত করতে থাকে। টানা আট মিনিট ধরে এভাবে চলতে থাকে। যদি তাকে আটকের জন্যই এসে থাকেন, তাহলে নিয়ে যান। কিন্তু তাকে আঘাত করা কেনো? প্রশ্ন রাখেন হুসেইন বানাত।

প্রত্যক্ষদর্শী পরিবারের আরেক সদস্য বলেন, যখন আটক করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তখন নিজার বানাত জীবিত ছিল এবং আঘাতের কারণে চিৎকার করছিল।

এক বিবৃতিকে হেব্রনের গভর্নর জিবরিন অঅল-বাকরি বলেন, পিএ অ্যাটর্নি জেনারেলের নির্দেশে বানাতকে আটক করা হয়েছিল। তবে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি কর্তৃপক্ষ।

বানাতকে হাজতে নেওয়ার পর তার স্বাস্থ্য পরিস্থিতি খারাপ হতে থাকে। তখন তাৎক্ষণিকভাবে তাকে হেব্রন সরকারি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x