দিল্লির রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির ভেঙে দিয়েছে প্রশাসন

দিল্লির রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির ভেঙে দিয়েছে প্রশাসন
ছবি: সংগৃহীত

ভারতের উত্তরপ্রদেশের দিল্লি সীমান্তে রোহিঙ্গাদের এক অস্থায়ী শিবির ভেঙে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। এতে গৃহহীন হয়ে অসংখ্য পরিবার রাস্তার পাশে বাস করতে শুরু করেছে। সম্প্রতি ওই শিবিরে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে এবং এবার তা ভেঙে দেওয়া হলো। খবর প্রকাশ করেছে ডয়চে ভেলে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি মদনপুর খাদারের রোহিঙ্গা শিবিরে আগুন লাগে। ক্যাম্পের বাসিন্দাদের দাবি, সেখানে বারবার ইচ্ছাকৃতভাবে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে। যদিও প্রশাসন সেই দাবি অস্বীকার করে আসছে।

জানা গেছে, রোহিঙ্গা শিবিরটির লাগোয়া উত্তরপ্রদেশের সেচ দফতরের জমিতে তৈরি হওয়া শিবির বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। ভেতরে থাকা একটি অস্থায়ী মসজিদও ভেঙে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

অবশ্য উত্তরপ্রদেশ ইরিগেশন বিভাগ পরিচালিত এই অভিযানে মসজিদ ভাঙার কথা স্বীকার করেনি প্রশাসন। দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লির জেলা প্রশাসক জানান, মসজিদ ভাঙা হয়নি এবং সেখানে কোনো মসজিদ ছিল না। কেবল টেন্টগুলো ভেঙে ফেলা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য, টেন্টের ভেতরে একটি অস্থায়ী মসজিদ ছিল।

জেলা প্রশাসকের দাবি, কোনো অনুমতি না নিয়েই ক্যাম্পটি তৈরি করা হয়েছিল। বাসিন্দাদের নতুন ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়ার উদ্দেধ্যেই এখন এটি ভাঙা হচ্ছে।

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x