শঙ্কার মধ্যেই কাজে ফিরলেন ১২ আফগান নারী

শঙ্কার মধ্যেই কাজে ফিরলেন ১২ আফগান নারী
কাবুল বিমানবন্দরে কাজে যোগ দিয়েছেন আফগান নারীরা। ছবি: এএফপি

গত মাসে তালেবান ক্ষমতায় আসার পূর্বে কাবুল বিমানবন্দরে ৮০ জনের বেশি নারী কাজ করতেন। কিন্তু এর পরই পরিস্থিতি বদলে যায়। নিরাপত্তার কথা তুলে নারীদের ঘরে থাকতে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেছে তালেবান। তবে গোষ্ঠীটির নির্দেশনার অপেক্ষা না করেই বিমানবন্দরে কাজে যোগ দিয়েছেন ১২ জন আফগান নারী। খবর প্রকাশ করেছে এনডিটিভি ও বার্তা সংস্থা এএফপি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কাবুল বিমানবন্দরে কাজে যোগ দেওয়া নারীদের মধ্যে একজন ৩৫ বছর বয়সী রাবিয়া জামাল। তিনি সংসার চালাতে এবং অর্থের প্রয়োজনে সংকটময় পরিস্থিতির মধ্যেই কাজে যোগ দিতে বাধ্য হয়েছেন।

No description available.

তিন সন্তানের জননী রাবিয়া এএফপিকে বলেন, ‘সংসারে সহায়তার জন্য আমার অর্থ প্রয়োজন। আমি বাড়িতে বসে চিন্তায় ছিলাম, খুব খারাপ লাগত। এখন আমি ভালো অনুভব করছি।’

কাজে যোগ দেওয়াদের মধ্যে ছয়জনকে গতকাল শনিবার বিমানবন্দরের প্রধান ফটকে নারী যাত্রীদের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা যায়। তাদের একজন রাবিয়ার বোন ৪৯ বছর বয়সী কুদসিয়া জামাল। তিনি বলেন, তালেবানের ক্ষমতা দখল তাকে হতবাক করেছে।

পাঁচ সন্তানের জননী এবং পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী এই নারী বলেন, ‘আমি খুব ভয়ের মধ্যে ছিলাম। আমাকে নিয়ে পরিবার শঙ্কায় ছিল। তারা আমাকে কাজে ফিরতে নিষেধ করেছিল। তবে আমি খুশি, নিশ্চিন্তে আছি এবং এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যার মুখে পড়তে হয়নি।’

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x