পাকিস্তানে জঙ্গি প্রশিক্ষণ নিয়েছে ১৫-১৬ জন বাংলাভাষী, ভারতে নাশকতার পরিকল্পনা ছিল

দিল্লি পুলিশের হাতে গ্রেফতার জঙ্গিদের চাঞ্চল্যকর তথ্য
পাকিস্তানে জঙ্গি প্রশিক্ষণ নিয়েছে ১৫-১৬ জন বাংলাভাষী, ভারতে নাশকতার পরিকল্পনা ছিল
ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানে ১৫-১৬ জন বাংলাভাষীও জঙ্গি প্রশিক্ষণ নিয়েছে। গ্রেফতার জঙ্গিদের মধ্যে জিশান এবং ওসামাকে জেরা করে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে বলে দাবি দিল্লি পুলিশের।

প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা, ঐ বাংলাভাষীরা বাংলাদেশের হতে পারে। তবে আদৌ তারা বাংলাদেশি নাকি পশ্চিমবঙ্গের, তা খতিয়ে দেখা শুরু করেছে দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল। মুম্বাইয়ে ১৯৯৩ সালের ধারাবাহিক বিস্ফোরণের ধাঁচে নাশকতার পরিকল্পনা ছিল ছয় জঙ্গির। পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এবং রেলসেতু উড়িয়ে দেওয়ার জন্য প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়েছিল তাদের। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার

দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের সিপি নীরজ ঠাকুর বলেন, ‘গত ২২ এপ্রিল লখনৌ থেকে মাসকাটে গিয়েছিল ওসামা। সেখানে জিশানের সঙ্গে দেখা হয় তার। তারপর তারা দুজনে পাকিস্তানে গিয়েছিল। সেখানে জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবিরে তাদের সঙ্গে ১৫-১৬ জন বাংলাভাষীও ছিল। নীরজ ঠাকুর আরো বলেন, জিশানরা প্রশিক্ষণ নিয়ে ভারতে ফেরে।

আর ঐ বাংলাভাষীরা বেশ কয়েকটি ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে যায়।’ দুই জঙ্গিকে জেরা করে এই চাঞ্চল্যকর তথ্যই উঠে এসেছে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, ঐ বাংলাভাষীরা কারা, বাংলাদেশের নাকি পশ্চিমবঙ্গের? তারা ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে কোথায় গেল? এই তথ্যগুলোই এখন খুঁজে বের করার চেষ্টা চালাচ্ছেন তদন্তকারী কর্মকর্তারা। গত মঙ্গলবার দিল্লি, উত্তর এবং রাজস্থানের বিভিন্ন জায়গা থেকে ছয় জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশ এবং উত্তর প্রদেশ পুলিশের সন্ত্রাসদমন শাখা। উত্সবের মৌসুমে দেশের বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় গ্রেফতার জঙ্গিদের বড় ধরনের হামলার ছক ছিল।

ইত্তেফাক/এসজেড

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x