ব্রিটেনে পাঁচজনের একজন পর্নোগ্রাফিকে পেশা বানাতে চান: সমীক্ষা

ব্রিটেনে পাঁচজনের একজন পর্নোগ্রাফিকে পেশা বানাতে চান: সমীক্ষা
ছবি: প্রতীকী

যদি স্যালারি বেশি হয় এবং নিরাপত্তা পরিবেশ ভালো থাকে, তাহলে পর্নোগ্রাফিকে পেশা বানাতে চান প্রতি পাঁচ জনের একজন ব্রিটিশ তরুণ-তরুণী। সম্প্রতি দেশটির সাভাম্তা কমরেস নামের একটি সংস্থার ‘দ্য ন্যাকেড ট্রুথ প্রজেক্ট’ শীর্ষক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। খবর প্রকাশ করেছে স্কাই নিউজ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মোট ২ হাজার ৮৭ জনের ওপর সমীক্ষা চালানো হয়েছে। এর মধ্যে ১৮ থেকে ৩৪ বছর বয়সী ব্যত্তিদের মধ্যে ৩২ শতাংশ বলছে, তারা যে অর্থ উপার্জন করতে পারে সেটির কারণে এই পেশায় প্রলুব্ধ হয়েছে। ৫৫ বছর বয়সী এবং তধুর্ধ্ব ৮ শতাংশ ব্যক্তিও এক মত দিয়েছেন।

সমীক্ষায় এটাও ওঠে এসেছে যে, জরিপে অংশ নেওয়া ৫১ শতাংশ ব্রিটিশ নাগরিক বলছেন, পরিবারের কেউ ইন্টারনেটে পর্নোগ্রাফি কনটেন্ট তৈরি করলে তারা উদ্বিগ্ন হবেন। ৩৪ শতাংশ মনে করছেন, পর্নোগ্রাফি এখন আধুনিক সমাজের একটি গ্রহণযোগ্য বিষয়বস্তুতে পরিণত হয়েছে।

২৪ বছর বয়সী তরুণী ম্যাডেলাইন বুথ বলেন, তিনি পর্নোগ্রাফি সাইট অনলিফেন্সের জন্য কন্টেন্ট তৈরি করেন। এ কাজ তাকে আত্মবিশ্বাস জোগাতে সহায়তা করে এবং পাশাপাশি একটি স্থায়ী রাজস্ব এনে দেয়।

No description available.

স্কাই নিউজকে তিনি বলেন, এটি দারুণ। কারণ, আপনি নিজেই বস এবং আপনার জন্য ইচ্ছেমতো মূল্য নির্ধারণ করতে পারবেন। আপনি নিজের ওপর সত্যিই আত্মবিশ্বাসী হতে শুরু করবেন।

সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়ান হেন্ডারসন বলেন, অনেক মানুষ এই পেশায় ক্যারিয়ার গড়ার জন্য উন্মুখ। যা খুবই উদ্বেগের বিষয়।

আমি বিশ্বাস করি, পর্ন জীবন ধ্বংস করে এবং সম্পর্ক নষ্ট করে। এটি মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা, আসক্তি, পুরুষত্বহীনতার মতো বিষয়গুলো সৃষ্টি করতে পারে, যোগ করেন তিনি।

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x