কলম্বিয়ার মার্কিন দূতাবাসেও ‘হাভানা সিনড্রোম’

কলম্বিয়ার মার্কিন দূতাবাসেও ‘হাভানা সিনড্রোম’
কলম্বিয়ার বোগাতায় মার্কিন দূতাবাস। ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা কলম্বিয়ায় তাদের দূতাবাসের কয়েকজন কর্মীর দেহে সম্ভাব্য ‘হাভানা সিনড্রোমের’ উপসর্গ খতিয়ে দেখছে বলে জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলো। কয়েকদিন পরেই যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কলম্বিয়া যাওয়ার কথা রয়েছে। তার আগে বোগাতার মার্কিন দূতাবাসে কর্মীদের রহস্যজনক অসুস্থতার এ খবর মিললো। খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।

এ অসুস্থতার কারণে আক্রান্তদের অনেকে কানে তীব্র কষ্টদায়ক শব্দ শুনতে পান। আবার কারও ক্লান্তি লাগে কিংবা মাথা ঘোরে। ২০১৬ সালে প্রথম কিউবার রাজধানী হাভানায় যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা দূতাবাসের কর্মীরা মাথা ঘোরা, ভারসাম্যহীনতা, কানে কম শোনা, স্মৃতি হারানো ও দুশ্চিন্তার মতো লক্ষণের কথা জানিয়েছিলেন। পরে এ ধরনের আরও ঘটনার খবর মেলে। অনেকের ধারণা, এটি এক ধরনের হামলা।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল প্রথম কলম্বিয়ার মার্কিন দূতাবাসে ‘হাভানা সিনড্রোমের’ হানা দেওয়ার খবর দেয়। তারা জানায়. কলম্বিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ফিলিপ গোল্ডবার্গ মধ্য সেপ্টেম্বর থেকে পাঠানো ইমেইলে দূতাবাসে একাধিক ‘ব্যাখ্যাতীত স্বাস্থ্যগত ঘটনার’ কথা জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র সরকার হাভানা সিনড্রোমের ক্ষেত্রে এ শব্দবন্ধই ব্যবহার করে। কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান দুকে পরে নিউইয়র্ক টাইমসকে বলেছেন, তারা বোগাতায় হাভানা সিনড্রোম সংক্রান্ত প্রতিবেদনগুলো খতিয়ে দেখছেন।

ইত্তেফাক/টিএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x