অস্ট্রেলিয়ার সৈকতে দৈত্যাকৃতির মাছ

প্রকাশ : ২২ মার্চ ২০১৯, ০৮:৩৬ | অনলাইন সংস্করণ

  অনলাইন ডেস্ক

অস্ট্রেলিয়ার সৈকতে পাওয়া মাছটিকে বিশেষজ্ঞরা সানফিশ হিসেবে শনাক্ত করেছেন। ছবি : সংগৃহিত

দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার একটি সৈকতে দৈত্যাকৃতির, অদ্ভুতদর্শন একটি মাছ ভেসে আসার পর এর ছবিগুলো ভাইরাল হয়েছে। এক দশমিক ৮ মিটার (৬ ফুট) লম্বা এই নমুনাটিকে বিশেষজ্ঞরা একটি সামুদ্রিক সানফিশ হিসেবে শনাক্ত করেছেন।

 

ওই এলাকার একদল জেলে সৈকতের বালির ওপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে যাওয়ার সময় প্রথম মাছটিকে দেখতে পান। প্রথমে এটিকে ভেসে আসা বড় একটি কাঠের খণ্ড বলে ভুল করেছিলেন তারা, জানিয়েছেন লিনেত গোজেলাক। তিনিই তার পার্টনারের ফেসবুক পেইজে ছবিগুলো পোস্ট করেছিলেন। তিনি বলেন, “গুগলে সানফিশ নাম পাওয়ার আগ পর্যন্ত আমি এটাকে সত্যি বলে মনে করিনি।” তার পার্টনার স্টিভেন জোন্স কয়েক বছর ধরে মাছ ধরার কাজ করছেন জানিয়ে তিনি বলেন, “তাই সে জানত এটা কী; কিন্তু এর আগে বাস্তবে কখনো দেখেনি। “এ কারণেই এটির ছবি তুলেছে তারা। সে জানিয়েছে এটি অত্যন্ত ভারী আর এর চামড়া খসখসে অনেকটা গণ্ডারের চামড়ার মতো।”

 

অ্যাডিলেড শহর থেকে ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণে কুরঙ ন্যাশনাল পার্কে মাছটিকে পাওয়া যায়। মাছটি পরে ঢেউয়ের তোড়ে ফের সমুদ্রে ভেসে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সামুদ্রিক সানফিশ বা মোলা মোলা বিশ্বের সবচেয়ে ভারী কাঁটাযুক্ত মাছ। বিশ্বব্যাপী নাতিশীতোষ্ণ সামুদ্রিক জলে এগুলোকে পাওয়া যায়। বড় ভোঁতা মাথা, বেমানান ছোট মুখ, পিঠে লম্বা পাখনা ও পেছন দিকেও পাখনা আছে এই মাছের।

 

এক বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ার সৈকতে যে মাছটি পাওয়া গেছে সেটিকে ছোট বলে মনে হয়েছে, কারণ এই মাছগুলো ৪ মিটারেরও (১৩ ফুট) বেশি লম্বা ও আড়াই টনেরও (২,৫০০ কেজি) বেশি ওজনের হতে পারে। বিবিসি

 

ইত্তেফাক/ইউবি