দক্ষিণ ইংল্যান্ডে ১ ঘণ্টায় এক হাজার বজ্রপাত!

প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৯, ২৩:৫৮ | অনলাইন সংস্করণ

  অহিদুজ্জামান, লন্ডন থেকে

দক্ষিণ ইংল্যান্ডে বজ্রপাত। ছবি: ইত্তেফাক

সাউথ ইংল্যান্ডের দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলীয় এলাকা ইস্টবোর্নে গত মঙ্গলবার ১ ঘণ্টায় এক হাজার বারের বেশি বজ্রপাত ও ঝড়ের ঘটনা ঘটেছে। এতে দক্ষিণ ইংল্যান্ডের প্রায় পুরো এলাকা আকস্মিক বন্যায় তলিয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে কর্তৃপক্ষ ওই এলাকার ৬শর বেশি বাসিন্দাকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছে।

এলাকার বাসিন্দা বেলাল আহমেদ ইত্তেফাককে জানিয়েছেন, গত কয়েকদিন যাবৎ বৃষ্টি হচ্ছিলো। এরমধ্যে হঠাৎ করেই গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার পূর্ব মুহূর্তে আকাশে ঘন ঘন বিদ্যুৎ চমকানো শুরু হয়। সেইসঙ্গে ভয়ংকর বজ্রঝড়  শুরু হয়। এই দুর্যোগ প্রায় ভোর রাত পর্যন্ত চলতে থাকে। এরমধ্যে অন্তত ২০-২৫ মিনিট বিরতিহীনভাবে বজ্রপাত হয়। এ সময় পুরোএলাকা বিদ্যুৎহীন হয়ে গেলে এলাকায় বেশ আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে কর্তৃপক্ষ এলাকাবাসীকে আস্বস্ত করে।

এলাকার অপর এক বাসিন্দা ক্যারোল পিয়ার্স বলেন, ‘কোনোকিছু বুঝে ওঠার আগেই মুহূর্তের মধ্যেই বজ্রঝড়টি শুরু হয়। সেই সঙ্গে মুষলধারে বৃষ্টির সঙ্গে সমুদ্র থেকে পানির ঢেউ এসে পুরো এলাকা সয়লাব হয়ে যায়।’

দক্ষিণ ইংল্যান্ডে বজ্রপাত। ছবি: ইত্তেফাক

তিনি বলেন, ‘'আমার একান্ন বছর বয়সে এমন ভয়ঙ্কর অবস্থা কখনও দেখিনি। এমনকি আমার মা-বাবা কিংবা তাদের চেয়েও যারা বেশি বয়সের তাদের মুখেও কোনোদিন এমন অবস্থার কথা শুনিনি। বজ্রপাতের শব্দে মানুষের বধির হয়ে যাওয়ার অবস্থা হয়েছিল।’

স্থানীয় আবহাওয়া অফিস জানায়, রাত ১১টা থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত ৪২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ জানায়, শহরটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 

আরও পড়ুন: নুসরাত হত্যা মামলায় স্বাক্ষী তলব ২৭ জুন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ঘটনার ছবি এবং ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষ মন্তব্য করেন যে, ‘এমন ভয়ঙ্কর অবস্থা আমরা কখনোই দেখিনি।’ উল্লেখ্য, স্থানীয় টেলিভিশন খবরে বলা হয়, ‘১২ ঘন্টায় ১০ হাজার বারের বেশি বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। ’

ইত্তেফাক/নূহু