ঢাকা সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬
৩৩ °সে


ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়, অন্ধকার কারাকাস

ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়, অন্ধকার কারাকাস
প্রতীকী ছবি

রাজধানী কারাকাসসহ ভেনিজুয়েলার অধিকাংশ এলাকায় সোমবার বড় ধরণের বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঘটেছে। সরকার একে ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক হামলা হিসেবে বর্ণনা করে এর নিন্দা করেছে।

দেশটির যোগাযোগ মন্ত্রী জর্জ রদ্রিগুয়েজ রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে এক বিবৃতিতে বলেছেন, তদন্তের প্রাথমিক আলামত হিসেবে একে ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক হামলা হিসেবে মনে করা হচ্ছে যার লক্ষ্য ছিল গায়ানার জলবিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যবস্থা বানচাল করা। তিনি একে একটি জাতীয় ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করেন।

এদিকে বিদ্যুৎ না থাকায় ট্রাফিক বাতি কাজ না করায় রাজধানীতে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া মেট্রো থেমে যাওয়ায় যাত্রীদের হেঁটে বাড়ি ফিরতে হয়েছে। দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ড ব্যবহার করতে না পারায় বিপাকে পড়েছে অসংখ্য লোক। হাতে নগদ অর্থ না থাকায় এমনকি অনেককে ক্ষুধার্ত থাকতে হচ্ছে।

হারম্যান মন্টাভালো নামের এক ব্যক্তি বলছেন, ‘আমি ক্ষুধার্ত। কিন্তু খাবার খেতে পারছি না। একটি হটডগ কেনার মতো অর্থ হাতে নেই। কোথাও আমি ডেবিটকার্ড ব্যবহার করতে পারছিনা।’

ভেনিজুয়েলা এর আগেও বড়ো ধরণের বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের কবলে পড়ে। গত মাচর্ মাসে দেশটির ২৩ টি রাজ্যই অন্ধকারে ডুবে যায় এবং তা এক সপ্তাহ স্থায়ী হয়। সে সময়ে পানি সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অফিস আদালতেও কাজকর্ম বাতিল করতে হয়।

এদিকে দেশটির প্রেসিডেন্ট মাদুরো এ ঘটনার জন্যে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের দায়ী করে বলেছেন, তারা গুরি জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রে হামলা চালিয়েছে।

আরো পড়ুন: ফেসবুকের দেওয়া তথ্যে যুবকের আত্মহত্যা ঠেকালো পুলিশ

রুদ্রিগুয়েজ বলেছেন, পূর্বের অভিজ্ঞতার আলোকে সরকার সুরক্ষা ও নিরাপত্তা প্রটোকল বাস্তবায়ন করেছে। ফলে, স্বল্প সময়ের মধ্যেই বিদ্যুৎ ব্যবস্থা পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হবে।

ইত্তেফাক/টিএস

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৯ আগস্ট, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন