‘বেঁচে থাকতে পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হতে দেব না’

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৪২ | অনলাইন সংস্করণ

  ইত্তেফাক ডেস্ক

মমতা ব্যানার্জি। ফাইল ছবি

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, উসকানিমূলক মন্তব্য প্রচার করা হচ্ছে। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের সকল মানুষ নিশ্চিত থাকুন, এখানে এনআরসি হবে না। আমি বেঁচে থাকতে এনআরসি হতে দেব না। শুক্রবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকের পর কলকাতায় ফিরেই এনআরসির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন মমতা। শুক্রবার এনআরসি আতঙ্কে এক ব্যক্তির আত্মহত্যার খবর সামনে আসার পর মমতা বলেন, গুজবে কান দেবেন না। এনআরসি করতে গেলে রাজ্য সরকারেরও মতামত লাগে। পশ্চিমবঙ্গে তো আমরা সরকারে রয়েছি। আমি বলছি, এনআরসি হবে না। আপনাদের কারো গায়ে হাত দিতে গেলে প্রথমে মমতার গায়ে হাত দিতে হবে। আমি আপনাদের পাহারাদার ছিলাম, আছি এবং থাকব।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি প্রধান দিলীপ ঘোষ বলেছেন, বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী মুসলিমদের কারণেই পশ্চিমবঙ্গের ‘প্রকৃত’ মুসলিমরা সুযোগ হারাচ্ছেন। হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে দিলীপ ঘোষ বলেন, মুসলিমরা এক ধরনের কাজে পারদর্শী, হিন্দুরা আরেক রকম। আমরা মুসলিমদের কাছে বিষয়টি ব্যাখ্যা করছি যে, পশ্চিমবঙ্গের মুসলিমরা যে কাজে যুক্ত ও দক্ষ; বাংলাদেশ থেকে আসা অনুপ্রবেশকারী মুসলিমরাও ঠিক একই কাজ নিচ্ছে। তাই বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের কারণে এখানকার প্রকৃত মুসলিমরা সুযোগ হারাচ্ছে।

এনআরসি নিয়ে তিনি বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা সংশোধিত নাগরিক বিলের মাধ্যমে মুসলিম দেশগুলো থেকে আসা হিন্দু ও অন্যান্য সংখ্যালঘুর অধিকার নিশ্চিত করতে পারব, ততক্ষণ পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবে না। এ ব্যাপারে আমরা তাকে (মমতা) বিস্তারিত বলব। বাংলাদেশে নির্যাতিত হিন্দুরা নাগরিকত্ব পাক, সেটা মমতা চান নাকি চান না? উত্তর তাকেই দিতে হবে।

ইত্তেফাক/এমআর