খ্যাপা গরু সামলাতে হেলিকপ্টার!

খ্যাপা গরু সামলাতে হেলিকপ্টার!
ছবি: সংগৃহীত

খামার থেকে পালানো এক গরু নিয়ে বিপাকে পড়েছে জার্মান পুলিশ। গরুটি ধরতে আনতে ব্যবহার করতে হয়েছে থার্মাল ইমেজিং প্রযুক্তি সম্পন্ন হেলিকপ্টারও। কয়েক ঘন্টাব্যাপী গরুটির পেছনে ছুটেছে পুলিশ। এর মধ্যে গরুটি তার মালিককে আহত করেছে এবং ক্ষতি করেছে গ্রিনহাউস ও পুলিশের একটি গাড়ির। জার্মানের বাভারিয়ার সান্ড আম মাইনে ঘটেছে এমন কাণ্ড।

শনিবার সন্ধ্যায় খামার থেকে গরুটি পালিয়ে যাওয়ার কথা পুলিশকে জানায় তার মালিক। এর চারঘন্টা পর ৬০০ কেজি ওজনের প্রাণীটিকে ধরতে পুলিশ সক্ষম হয়। বাভারিয়াতে পালিয়ে যাওয়া এক গরু রীতিমত নাজেহাল করে ছেড়েছে জার্মান পুলিশকে। গরুটি ধরার জন্য ব্যবহার করতে হয়েছে একাধিক গাড়ি আর থার্মাল ক্যামেরা সম্বলিত হেলিকপ্টার। গরুটিকে বাগে আনতে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী অগ্নিনির্বাপণ কর্মীদেরও সাহায্য নিতে হয়েছে তাদের।

পুলিশ জানিয়েছে, শুরুতে এটা হাস্যকর মনে হলেও এটা বেশ বিপজ্জনক একটা কাজ। স্থানীয় একটি সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন পুলিশ কমান্ডার আন্দ্রেয়া ভিঙ্কলার।

আরো পড়ুন: পদত্যাগের প্রশ্নই আসে না: মেনন

প্রথমে দুইটি গরু পালিয়ে গেলেও একটিকে নিজেই ধরতে সক্ষম হন খামার মালিক৷ স্থানীয় কর্তৃপক্ষ অন্যটিকে পরবর্তীতে নিকটবর্তী একটি সুপার মার্কেটের কাছে চিহ্নিত করে৷ এ সময় প্রাণীটি একটি গ্রিনহাউজ ও প্রশিক্ষণ শিবির ক্ষতিগ্রস্ত করে৷ এক পর্যায়ে পুলিশ সেখানকার বাসিন্দাদের সরে যেতে বলে। গরুটি একসময় ভীত হয়ে একটি স্কুটার ও পুলিশের গাড়ির উপরও চড়াও হয়৷ শান্ত করতে গিয়ে তার রোষানলে পড়তে হয়েছে গরুর মালিককেও, যদিও জখম গুরুতর ছিল না।

পালিয়ে যাওয়ার এক পর্যায়ে হেলিকপ্টার থেকে গরুটিকে একটি সরু পথের শেষ প্রান্তে চিহ্নিত করে পুলিশ। গাড়ি নিয়ে পুলিশ আর স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী অগ্নি নির্বাপণ কর্মীরা তাকে ঘিরে ফেলে। তাদের সাথে ছিল একজন প্রাণী চিকিৎসকও। তিনি চেতনা নাশক তীর ছুঁড়ে গরুটিকে বাগে আনতে সক্ষম হন। রবিবার সকালে মালিকে সেটিকে খামারে ফিরিয়ে নেন বলে নিশ্চিত করেছে সংবাদ সংস্থা ডিপিএ।

ইত্তেফাক/বিএএফ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত