সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

সিলেটের সাত ভাষা সৈনিককে সম্মাননা প্রদান

আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:৪৮

সিলেটের সাত ভাষাসৈনিককে সম্মাননা জানানো হয়েছে। দেশ ও জাতীয় জীবনে তাদের অসামান্য অবদানকে স্মরণ করতে সম্মিলন ঘটে সিলেটের সুধীজনের। সম্মাননা অনুষ্ঠানকে ঘিরে সৃষ্টি হয় এক আবেগঘন পরিবেশের। রবিবার সন্ধ্যায় এ সাত জন ভাষাসৈনিককে সম্মাননা জানাতে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন রাজনীতিবিদ, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক, আইনজীবী, ব্যবসায়ী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বসহ সিলেটের সুধী সমাজ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বক্তব্য রাখেন জাতীয় অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী এবং সাবেক সচিব ও রাষ্ট্রদূত কবি মোফাজ্জল করিম। এরপর ভাষা সৈনিক হিসেবে প্রথমে ঘোষণা করা হয় সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার মরহুম ডা. হারিস আলীর নাম। তার পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন তার ছেলে ডা. সালেহ আহমদ আলমগীর। প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ বালাগঞ্জের মরহুম কমরেড আসাদ্দর আলীর পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন তার মেয়ে নাফিসা খানম আশা। ভাষাসৈনিক গোলাপগঞ্জ উপজেলার মরহুম অ্যাডভোকেট মনির উদ্দিন আহমদের পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন তার ছেলে আবু সালেহ মো. নাইম। ভাষা আন্দোলনে অংশ নেওয়া শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি মরহুম প্রফেসর ড. সদর উদ্দিন আহমদ চৌধুরীর পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন তার কন্যা প্রফেসর ড. নাজিয়া চৌধুরী। তত্কালীন ভাষা আন্দোলনে ১৪৪ ধারা ভেঙে মিছিলে অংশ নেওয়ায় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে কারাবরণকারী সাবেক অর্থমন্ত্রী মরহুম এম সাইফুর রহমানের পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট এম মুজিবুর রহমান। ছাত্রনেতা থেকে মন্ত্রী, ভাষা আন্দোলন থেকে মুক্তিযুদ্ধ সব আন্দোলনে অবদান রাখা বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী জননেতা মরহুম আব্দুস সামাদ আজাদের পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন তার ছেলে আজিজুস সামাদ ডন। সাত জনের মধ্যে একমাত্র জীবিত ভাষাসৈনিক হিসেবে সম্মাননা গ্রহণ করেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সিলেট সিটি করপোরেশন ও সিলেট টুডে টোয়ান্টিফোর ডটকমের উদ্যোগে ভাষাসৈনিক সম্মাননা ২০২০ প্রদান অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী ও সিলেট টুডে টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান সম্পাদক কবির আহমদ।

ধন্যবাদ বক্তব্যে সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, এই সম্মাননা প্রদান অব্যাহত থাকবে এবং নতুন প্রজন্ম আমাদের গর্বের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সচিব ড. এ কে আব্দুল মোবিন, সনাক সিলেটের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, মহানগর সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জি, মদনমোহন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ড. আবুল ফতেহ ফাত্তাহ, সিলেট চেম্বারের সভাপতি আবু তাহের শোয়েব, সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সাবেক সভাপতি হারুনুজ্জামান চৌধুরী ও আহমেদ নুর, সাংবাদিক আজিজ আহমদ সেলিম, রাজনীতিবিদ কাইয়ুম চৌধুরী, অ্যাডভোকেট হোসেন আহমদ ও অ্যাডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।