শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বনানী কবরস্থানেই সমাহিত শাহীন আলম

আপডেট : ০৯ মার্চ ২০২১, ১১:৩৯

ঘণ্টা খানেকে অপেক্ষার পর বনানী কবরস্থানেই দাফন করা হলো সদ্য প্রয়াত অভিনেতা শাহীন আলমকে। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বড় ভাইয়ের কবরের জায়গায় সমাহিত করা হয়েছে নব্বইয়ের দশকের এই চিত্রনায়ককে। এসময় চিত্রনায়ক ওমর সানি এবং শাহীন আলমের পরিবাবের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

যদিও সকালে বাবার মরদেহ নিয়ে কিছু সময় কবরস্থানের বাইরেই অপেক্ষা করতে হয়েছিলো শাহীন আলমের ছেলে ফাহিম আলমকে। ঢাকা উত্তর সিটির মেয়রের অনুমতি না পাওয়া পর্যন্ত মরদেহ দাফন করতে দিচ্ছিলেন কবরস্থান কর্তৃপক্ষ। অবশেষে সেই অনুমতি মিলেছে।

ফাহিম বলেন, ‌‘আমার বাবার লাশ বনানী কবরস্থানে দাফনের জন্য নিয়ে এসেছি। এখানে আমার চাচার কবরের স্থানে বাবার মরদেহ দাফনের কথা ছিল। কিন্তু কবর কমিটির লোকেরা তাতে বাধা দেয়। তাদের বক্তব্য, মেয়রের অনুমতি নিয়ে সেখানে দাফন করতে হবে।’ 

এর আগে, বাদ ফজর নিকেতন মসজিদে তার জানাজা হয়। সেখানে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কাউকে দেখা যায়নি।

গতকাল সোমবার (৮ মার্চ) রাত ১০টার দিকে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। কিডনিজনিত জটিলতা নিয়ে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন শাহীন আলম। গত ৬ মার্চ থেকে তিনি লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

শাহীন আলম ১৯৮৬ সালে এফডিসির নতুন মুখের সন্ধানের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে আছে- ঘাটের মাঝি, এক পলকে, গরিবের সংসার, তেজী, চাঁদাবাজ, প্রেম প্রতিশোধ, টাইগার, রাগ-অনুরাগ, দাগী সন্তান, বাঘা-বাঘিনী, আলিফ লায়লা, স্বপ্নের নায়ক, আঞ্জুমান, অজানা শত্রু, দেশদ্রোহী, প্রেম দিওয়ানা, আমার মা, পাগলা বাবুল, শক্তির লড়াই, দলপতি, পাপী সন্তান, ঢাকাইয়া মাস্তান, বিগবস, বাবা ও বাঘের বাচ্চা।

ইত্তেফাক/কেকে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন