শনিবার, ২১ মে ২০২২, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

আমি প্রত্যেক আর্টিস্টকে সম্মান করি: মিথিলা

আপডেট : ৩১ অক্টোবর ২০২১, ২২:১৭

‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০২০’-বিজয়ী মডেল-অভিনেত্রী তানজিয়া জামান মিথিলা। বলিউডের সিনেমা ‘রোহিঙ্গা’ দিয়েই তার অভিষেক হতে যাচ্ছে। এ ছবিতে রোহিঙ্গা তরুণী হুসনে আরার চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এতে আরাকান ও হিন্দি ভাষায় কথা বলতে দেখা যাবে তাকে। আগামী ১৫ নভেম্বর সিনেমাটি মুক্তি পাবে। এর আগে গত ২৩  আগস্ট সিনেমাটি ভারতের সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পেয়েছে। এই অভিনেত্রী ‘রোহিঙ্গা’সহ বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেছেন ইত্তেফাক অনলাইনের সঙ্গে।

ইত্তেফাক: বলিউডের সিনেমা ‘রোহিঙ্গা’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এছাড়া এখন কী নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন?

মিথিলা: এখন ‘রোহিঙ্গা’ নিয়ে ব্যস্ত আছি। কিছুদিন পর সিনেমাটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এছাড়া, নতুন দুটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। এখনই নাম বলছি না। জমকালো মহরত করে জানানো হবে। আর নায়িকা হিসেবে তো আমি নতুন। সেজন্য পরিচালকরা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কিছু দেশের বড় বড় কিছু ব্যান্ডের শীতকালীন প্রডাক্টের ফটোশুট করছি।

ইত্তেফাক: জীবনের প্রথম সিনেমা বলিউড দিয়ে শুরু করছেন। এটা সবার ভগ্যে জোটে না। তো রোহিঙ্গা’ সিনেমার অভিজ্ঞতা কেমন?

মিথিলা: আমার জীবনের প্রথম কাজ একটি অন্তর্জাতিক সিনেমা দিয়ে শুরু হচ্ছে। এটা আমার অনেক বড় একটা পাওয়া। যেহেতু আগে আমি অভিনয় করতাম না। মডেল ছিলাম। এই সিনেমাটি করার পর থেকে আমার চিন্তা, ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবনাসহ অনেক কিছু পরিবর্তন হয়েছে। এখন আমি চিন্তা করি, অভিনয় করবো। রোহিঙ্গা সিনেমা করার আগে আমার অভিনয়ের কোনো চিন্তাই ছিল না।

ইত্তেফাক: যখন ‘রোহিঙ্গা’ সিনেমা করার জন্য আপনি বলিউডে পা রাখলেন, তখন ‘রোহিঙ্গা’ টিমের কাছে আপনি কতটা সহযোগিতা করেছেন?

মিথিলা: আমার সৌভাগ্য যে, ভালো নায়ক-পরিচালক পেয়েছি। তারা আমাকে অনেক বেশি সহযোগিতা করেছেন। একদিকে আমি বাংলাদেশ থেকে সেখানে গিয়েছি, অন্যদিকে প্রথম অভিনয় করছি। তাদের অন্তরিকতা আমাকে মুগ্ধ করেছে। ফলে অভিনয়টা ভালোভাবে শেষ করতে পেরেছি। তারাও জানিয়েছেন, আমার অভিনয়ে ভালো হয়েছে। পরিচালক জানিয়েছেন, আমার চোখের মধ্য দিয়ে যে দুঃখ দেখানো সম্ভব, সেটা পুরোপুরি দেখাতে পেরেছি।

ইত্তেফাক: সিনেমা দিয়ে আপনি ক্যারিয়ার শুরু করছেন। নাটক কিংবা ওয়েবফিল্ম নিয়ে আপনার চিন্তা কী?

মিথিলা: এই মুহূর্তে নাটক নিয়ে আমার কোনো চিন্তা নেই। ভবিষ্যতে কী হবে, জানি না। তবে ভালো ওয়েব সিরিজ বা ভালো কোনো স্টোরি লাইন বানালে সেটা নিয়ে চিন্তা করবো। এছাড়া আগামী ৪-৫ মাস আমার সিডিউলও খালি নেই।

ইত্তেফাক: দেশের দুটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন এবং আরও সিনেমা করবেন। সেগুলো নিয়ে আপনার প্রস্তুতি কেমন।

মিথিলা: প্রস্তুতি বলতে এই মুহূর্তে অভিনয় ও নাচ অনুশীলন করছি। সেখার থেকে বড় ব্যাপার হলো মানুষ কাজ করতে করতে অনেক কিছু শিখে ফেলে। আমিও সেটা করার চেষ্টা করছি।

ইত্তেফাক: আগে মডেলিং ও ফ্যাশান শোতে আপনাকে বেশি দেখা গেছে। সিনেমায় যুক্ত হওয়ার পর এগুলো কি ছেড়ে দেবেন?

মিথিলা: ফ্যাশান শো করবো না কিন্তু মডেলিং চালিয়ে যাবো। এর মধ্যে স্টিল ফটোশুট করবো।

ইত্তেফাক: ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে ভাবনা কী?

মিথিলা: এই মুহূর্তে ব্যক্তিগত জীবনে অভিনয় ছাড়া আর কোনো ভাবনা নেই। ভবিষ্যতে সেটা দেখা যাবে।

ইত্তেফাক: বাংলাদেশের কোন কোন নায়কের সঙ্গে কাজ করতে চান?

মিথিলা: আমি প্রত্যেক আর্টিস্টকে সম্মান করি। প্রত্যেক নায়কই নায়ক হয়েছেন তাদের যোগ্যতা দিয়ে। তাদের কোনো না কোনো যোগ্যতা আছে বলেই তারা নায়ক হয়েছেন। আমার নায়কটা গুরুত্বপূর্ণ না। গুরুত্বপূর্ণ হলো, একটা মুভি বানাচ্ছে কে, গল্পের লাইন কী, গল্প কতটা ভালো, গল্পে আমার গুরুত্ব কতটা আছে, সেসব দেখা। ভালো সিনেমা হলে দর্শক সিনেমা দেখতে যাবে।

ইত্তেফাক: দর্শকদের উদ্দেশে কী বলবেন?

মিথিলা: দর্শকদের উদ্দেশে বলতে চাই, আপনারা বেশি বেশি বাংলা সিনেমা দেখবেন। আমাদের দেশের শিল্পকে অনেক আমরা সম্মান করি।

ইত্তেফাক/বিএএফ/এনএইচ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

‘কষ্টটাকে কষ্ট মনে হয়নি যখন দর্শক কাজগুলো ভালবেসেছে’

রেড কার্পেটে হেঁটে শুভ: স্বপ্নের বাইরের কোনও কিছুকে ছোঁয়ার মতো

‘ভিউ বেশি মানেই কাজটি মানসম্পন্ন তা ভাবা ঠিক না’

‘সিনেমা হলে এনে আমি কখনওই দর্শককে ঠকাইনি’

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

মার্কিন পরিচালকের সিনেমায় সিয়াম, সঙ্গে মিথিলা

কান মাতাচ্ছেন ঐশ্বরিয়া-দীপিকা

আবদুল গাফফার চৌধুরীকে স্মরণ করলেন পরীমণি

কান উৎসবে ‘মুজিব’ বায়োপিকের ট্রেলার উদ্বোধন