সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮
দৈনিক ইত্তেফাক

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর যেসব বক্তব্য নিয়ে বিতর্ক

আপডেট : ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯:৫৮

বিভিন্ন ব্যক্তিকে নিয়ে নানা ধরনের উল্টা-পাল্টা কথা বলে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বেশ কয়েকদিন ধরেই ‘টক অব দি কান্ট্রিতে’ পরিণত হয়েছেন। তবে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহীর সঙ্গে একটি ফোনালাপ তাকে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিণত করেছে। 

এক ফেসবুক লাইভে তারেক রহমানের কন্যা জাইমা রহমানকে নিয়ে অশালীন ও বর্ণবাদী বক্তব্য দেন। যা বেশিরভাগই প্রকাশযোগ্য নয়। যেখানে একসময় তিনি বলেন, ‘আমার মুখ ভীষণ খারাপ।’

এক টিভি টকশোতে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা আসিফা আশরাফী পাপিয়াকে আলোচনার এক পর্যায়ে ‘মানসিক রোগে আক্রান্ত’ এবং তার চিকিৎসা দরকার বলে মন্তব্য করেন মুরাদ হাসান। সেই সময় দুইজনের মধ্যে তুমুল ঝগড়া লেগে যায়।

এদিকে, চলমান এই সমালোচনার মধ্যেই ফেসবুকে একটি ফাঁস হওয়া টেলিফোন আলাপ ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে একজন চিত্রনায়িকাকে নানা অশোভন কথাবার্তা ও হুমকি দিতে শোনা গেছে। ফাঁস হওয়া ওই কথোপকথনে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মাহিকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর সহায়তায় তুলে আনার হুমকি দেন। পুরো বক্তব্যে ‘অশ্রাব্য’ কিছু শব্দ উচ্চারিত হয়েছে।

এই দুটি ঘটনা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তুমুল সমালোচনা হচ্ছে। এমনকি আওয়ামী লীগের কট্টর সমর্থক বলে পরিচিত অনেকেই ফেসবুকে মুরাদের সমালোচনা করে বক্তব্য দিচ্ছেন

ইত্তেফাক/এসআই

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

মুরাদের বিরুদ্ধে মামলা নেয়নি আদালত

মুরাদের বিরুদ্ধে যত মামলা

যেভাবে বিমানবন্দর ছাড়লেন মুরাদ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

মুরাদকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ইমিগ্রেশন পুলিশ

করোনাবিধি না মেনে মুরাদ ঢাকা ছেড়েছিলেন কীভাবে