বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
দৈনিক ইত্তেফাক

পদত্যাগের পর যা বললেন মুরাদ

আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১৩:৫৬

মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। বুধবার (৭ ডিসেম্বর) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি।

এর আগে বিভিন্ন সময় বিতর্কিত মন্তব্য করায় মুরাদ হাসানকে মঙ্গলবারের (৭ ডিসেম্বর) মধ্যে পদত্যাগের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

পদত্যাগ করার পর নিজের ভেরিফাইড ফেসবুকে মা-বোনদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন মুরাদ। পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘আমি যদি কোন ভুল করে থাকি অথবা আমার কথায় মা-বোনদের মনে কষ্ট দিয়ে থাকি তাহলে আমাকে ক্ষমা করে দিবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মমতাময়ী মা দেশরত্ন বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সকল সিদ্ধান্ত মেনে নিবো আজীবন। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।’

বেশকিছু দিন ধরে বিভিন্ন কারণে আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি অডিও ক্লিপ। যেখানে কথা বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। অপর প্রান্তে ছিলেন চিত্রনায়ক ইমন ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি।

ফাঁস হওয়া ওই কথোপকথনে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মাহিকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর সহায়তায় তুলে আনার হুমকি দেন। পুরো বক্তব্যে ‘অশ্রাব্য’ কিছু শব্দ উচ্চারিত হয়েছে। বিষয়টি এখন ‘টক অব দ্য কান্ট্রি’।

এর দু’দিন আগেই ইউটিউবে প্রকাশিত একটি সাক্ষাৎকারে খালেদা জিয়ার পরিবারের এক নারী সদস্যকে উদ্দেশ্য করে অশালীন বক্তব্য দেন ডা. মুরাদ হাসান। প্রচারিত ভিডিওতে দেখা যায়, অনুষ্ঠানে সঞ্চালকের এক প্রশ্নের জবাবে হাস্যরস করতে করতে ওই নারীকে নিয়ে অশালীন মন্তব্য করেন তিনি।

ইত্তেফাক/এমআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

মুরাদের বিরুদ্ধে মামলা নেয়নি আদালত

মুরাদের বিরুদ্ধে যত মামলা

যেভাবে বিমানবন্দর ছাড়লেন মুরাদ

মুরাদকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ইমিগ্রেশন পুলিশ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

করোনাবিধি না মেনে মুরাদ ঢাকা ছেড়েছিলেন কীভাবে

দেশেই ফিরে এলেন মুরাদ

দেশ ছাড়লেন ডা. মুরাদ হাসান

মুখ লুকিয়ে বিমানবন্দরে মুরাদ