মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ফেরি পারাপারে যাত্রীপ্রতি ভাড়া বাড়বে ৭ টাকা

আপডেট : ১৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৫৩

বাস-লঞ্চে ভাড়া বাড়ানোর পর এবার ফেরি পারাপারে ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি)| প্রতি রুটেই বাসের প্রতি ট্রিপেই খরচ বাড়বে সাড়ে ৪০০ টাকা| ২৫ টাকার পরিবর্তে যাত্রীপ্রতি ভাড়ার প্রস্তাব করা হয়েছে ৩২টাকা| প্রস্তাব চূড়ান্ত, ফলে যাত্রী (লুজ) প্রতি ভাড়া বাড়বে ৭ টাকা| পরিবহনবাহী যাত্রীদের ভাড়া কত বাড়বে তা এখনো চূড়ান্ত করা হয়নি| 

সম্প্রতি সংস্থাটির পরিচালনা পর্ষদ গাড়ি প্রতি ২৫ শতাংশ ভাড়া বাড়ানো সংক্রান্ত প্রস্তাবটি নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে| ফেরির প্রস্তাবিত নতুন ভাড়া কার্যকর হলে দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার সঙ্গে সারা দেশের যাত্রী ও পণ্য পরিবহন ব্যয় আরো বেড়ে যাবে| 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান আহমদ শামীম আল রাজী ইত্তেফাককে বলেন, লোকসান কমাতে ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে| কেননা বিআইডব্লিউটিসি নিজস্ব অর্থায়নে পরিচালিত হয়| নতুন ভাড়া নির্ধারণ না হলে সংস্থাটি চলতে পারবে না| যদিও বর্তমানে সংস্থাটি লোকসানে নেই| গত ৮ নভেম্বর থেকে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে বাসের ভাড়া ২৭ শতাংশ বেড়েছে| লঞ্চের ভাড়া বেড়েছে ৩৫ শতাংশ| এই পরিস্থিতিতে ফেরিতে গাড়ি-যাত্রী পারাপারে ২৫ এবং ২০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব চূড়ান্ত| ফলে যাত্রীদের জন্য দুঃসহ হয়ে উঠবে| কেননা ফেরিতে গাড়ি পারাপারের ভাড়া বাড়ানো হলে সেটিও সরাসরি যাত্রীদের ঘাড়ে চাপবে| একইভাবে পণ্য পরিবহন ব্যয়ও বেড়ে যাচ্ছে| এর মাশুল গুনতে হবে সাধারণ মানুষদের| পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া, আরিচা-কাজিরহাট, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার, চাঁদপুর-শরীয়তপুর, ভোলা-লক্ষ্মীপুর এবং লাহারহাট-ভেদুরিয়া-এই ছয়টি রুটে সংস্থাটির ফেরি চলাচল করে| এসব রুটের ফেরিতে বাস পারাপারে বিআইডব্লিউটিসির নির্ধারিত হারে ভাড়া নেওয়া হয়| এর সঙ্গে বাড়তি যুক্ত হয় বাসের আরোহীদের ভাড়াও| বাসের আসন হিসাবে জনপ্রতি ১০ টাকা বা তার বেশি হারে ভাড়া নেয় বিআইডব্লিউটিসি| 
পরিবহনবাহী যাত্রীর বাইরে যাত্রী (লুজ) প্রতি ভাড়া নেওয়া হয় ২৫ টাকা করে| নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী লুজ যাত্রীপ্রতি ভাড়া ধরা হয়েছে ৩২ টাকা| অতিরিক্ত ৭ টাকা গুনতে হবে তাদের| গত ১৫ নভেম্বর নথির মাধ্যমে নতুন ভাড়ার প্রস্তাব অনুমোদন দেয় বিআইডব্লিউটিসির পরিচালনা পর্ষদ| প্রস্তাবিত ভাড়া আদায়ের চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য গত ১ ডিসেম্বর নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠায় সংস্থাটি| 

বিআইডব্লিউটিসির মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) জেসমিন আরা বেগম স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, ডিজেলের দাম শতকরা ২৪ শতাংশ বেড়েছে| এ কারণে যাত্রীবাহী নৌযান ও ফেরির তেল ক্রয় খাতের ব্যয় অস্বাভাবিক বেড়েছে| এছাড়া নৌযানের মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ, খুচরা যন্ত্রাংশ ক্রয়, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতনসহ অন্যান্য খাতের ব্যয় ক্রমান্বয়ে বেড়েছে| ব্যয় সমন্বয়ের জন্য ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে|

 

ইত্তেফাক/এমএএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ফেরি পারাপারে ২০ শতাংশ ভাড়া বাড়ছে

মধ্যপ্রাচ্যগামী ফ্লাইটগুলোতে লাগামহীন ভাড়া নৈরাজ্য

আপাতত বাড়ছে না ট্রেনের ভাড়া: রেলপথমন্ত্রী 

ইচ্ছেমাফিক ভাড়া আদায়ের ধুম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

পরিবহন ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য

মঙ্গলবার পাওয়া যাবে নতুন ভাড়ার চার্ট 

যাত্রী জিম্মি করে বাড়ানো হলো বাস-লঞ্চের ভাড়া

নতুন ফেরি কেনা নয়, মেরামতেই ঝোঁক