রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বগুড়ায় ভোটকেন্দ্রে সহিংসতা: ৩ শতাধিক আসামির বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট : ০৭ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:৪৬

বগুড়ার গাবতলীতে ভোটকেন্দ্রে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও ব্যালট বাক্স ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টার অভিযোগে ৩ শতাধিক অজ্ঞাত নারী-পুরুষের নামে থানায় মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) রাতে গাবতলী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও কালাইহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার জাকির হোসেন বাদী হয়ে গাবতলী মডেল থানায় এই মামলা দায়ের করেন। 

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলাম বলেন, মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধাদান এবং ভোটকেন্দ্রে হামলা-ভাঙচুরের অভিযোগ আনা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতেই মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। মামলায় কারও নাম উল্লেখ করা হয়নি। ঘটনাটি তদন্ত করা হবে। এ ঘটনায় এখনো কাউকে আটক কিংবা গ্রেফতার করা হয়নি।

এদিকে ভোটকেন্দ্রে হামলাকে কেন্দ্র করে ৪ জন নিহতের ঘটনায় জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরীকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

অপরদিকে বিজিবির গুলিতে নিহত কালাইহাটা গ্রামের এক নারীসহ ৪ জনের জানাজা শেষে বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় দাফন সম্পন্ন করা হয়। জানা গেছে, বগুড়ার জেলা প্রশাসক মো. জিয়াউল হক, পুলিশ সুপার সুদীপ চক্রবর্তী, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু ও সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু ছাড়াও জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

ভোটকেন্দ্রে হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় উল্লেখ করা হয় যে, ভোট গ্রহণ শেষে ভোট গণনার সময় ৩ শতাধিক অজ্ঞাত নারী-পুরুষ ভাঙচুর করে সরকারি কাজে বাধা সৃষ্টি করে এবং ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাহিরে চলে গেলে দায়িত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে বিজিবি সদস্যরা ৩১ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে। এতে চারজন নিহত হন।

ভোটকেন্দ্রে সহিংসতা। ছবি: সংগৃহীত
নির্বাচনী সহিংস এ ঘটনায় আরও চারজন গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন। তারা হলেন আবদুল (৪০), রাকিব (১৬), মেহেদী হাসান (১৩) ও ছহির উদ্দিন (৬০)। তাদের মধ্যে মেহেদী কালাইহাটা উচ্চবিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী।  

পুলিশ সুপার সুদীপ চক্রবর্তী জানান, নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হায়দার চৌধুরীকে প্রধান করে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটি এই কমিটি আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি যাচাই-বাছাই করবেন। একই সঙ্গে কমিটি আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গৃহীত পদক্ষেপ, যৌক্তিকতা, ক্ষয়ক্ষতি, কিংবা পরবর্তী কী পদক্ষেপ নেওয়া যায় তা জানাবে। তিনি বলেন, বালিয়াদীঘিতে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। 

ইত্তেফাক/এসজেড