বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮
দৈনিক ইত্তেফাক

বিয়ের অনুষ্ঠানে পৌঁছাতে পারলেন না তারা

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০:১১

দুই বোন ও বাচ্চা নিয়ে আত্মীয়ের বিয়েতে অংশ নিতে যাচ্ছিলেন আইনজীবীর সহকারী শফিকুর রহমান। কিন্তু কমিউনিটি সেন্টারে পৌঁছানোর আগেই বাস চাপায় মারা যান তার এক বোন ও অটোরিকশাচালক। গুরুতর আহত হয়েছেন  শফিক, তার অপর বোন ও বাচ্চাটি।  শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাতঘরিয়াপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

রাস্তা পারাপাররত এক অন্ধকে বাঁচাতে গিয়ে অটোরিকশাকে চাপা দিয়ে বাসটি রাস্তার পাশের খাদে পড়ে যায়। এ ঘটনায় বাসের অনেক যাত্রী আহত হয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীর বরাতে জানিয়েছেন ঈদগাঁও থানার ওসি মো. আবদুল হালিম।

নিহতরা হলেন- অটোরিকশার যাত্রী চকরিয়ার খুটাখালীর ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্বপাড়ার মৃত আমির হামজার মেয়ে ছেনোয়ারা বেগম (৩৮) ও একই ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাককুম পাড়ার জাফর আলমের ছেলে অটোরিকশাচালক মুহাম্মদ জিসান (২২)।

অটোরিকশাকে চাপা দেওয়া বাস।

গুরুতর আহত শফিকুর রহমান ও তসলিমা আকতারকে (৩২) কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারা নিহত ছেনোয়ারার ছোট ভাই-বোন। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। শফিকের সন্তানের নাম জানা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শী মিছবাহ উদ্দিন, সুরুত আলম ও জাহাঙ্গীর সম্রাট জানান, বিকাল ৪টার দিকে সাতঘরিয়াপাড়া এলাকায় এক অন্ধ ব্যক্তি রাস্তা পার হচ্ছিলেন। তাকে বাঁচাতে গিয়ে চট্টগ্রামমুখি পূরবী পরিবহনের একটি বাস রং সাইডে গিয়ে  অটোরিকশাকে চাপা দেয়। 

 

ইত্তেফাক/ইউবি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

‘ঘুষ না পেয়ে স্থাপনা উচ্ছেদ’

প্রথম স্বামীর জমানো টাকা আনতে গিয়ে দ্বিতীয় স্বামীর হাতে খুন!

নীলফামারীতে ট্রেন-অটো সংঘর্ষ, ৪ শ্রমিকের মৃত্যু

মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা মামলায় মেয়র কারাগারে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

নীলফামারীতে ট্রেনের ধাক্কায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত

রামুর হেডম্যান হত্যা মামলায় গ্রেফতার ২

পেকুয়ায় যুবতীর লাশ উদ্ধার

হাজীগঞ্জে অটোরিকশার ধাক্কায় গৃহবধূ নিহত