রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পাইকগাছায় ফুটপাতে চলছে শীতবস্ত্রের কেনাবেচা

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৩৩

কয়েক দিনের গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি সঙ্গে ঘন কুয়াশা আর হালকা বাতাসে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। মাঘের শীতের সঙ্গে বৃষ্টিতে পাইকগাছার কপিলমুনিসহ উপকূল অঞ্চলে শীতের তীব্রতায় সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের যেন শেষ নেই। আর শীত নিবারণে কপিলমুনির ফুটপাতের দোকানগুলোতে নতুন-পুরাতন শীতবস্ত্র বিক্রির ধুম লেগেছে। 

এসব দোকানগুলোতে মধ্যবিত্ত ও ধনীদের আনাগোনা দেখা যাচ্ছে। তীব্র শীতে নতুন শীতবস্ত্রের পাশাপাশি পুরাতন শীতবস্ত্র বিক্রি হচ্ছে প্রচুর পরিমাণে। কপিলমুনিতে তিন/চারটি স্থায়ী পুরাতন কাপড়ের দোকান থাকলেও শীতের এ সময় কপিলমুনির মাছ কাটা রোড, পরিবহন কাউন্টারের পাশে ছয়/সাতটি পুরাতন শীতবস্ত্রের দোকান বসেছে। এসব দোকানে শীতের জ্যাকেট, সুয়েটার, কোট, মাফলার, গেঞ্জি, মোজা ও মেয়েদের বিভিন্ন ডিজাইনের গরম কাপড়ের পসরা সাজিয়ে বসেছে বিক্রেতারা। 

পুরাতন কাপড় ব্যবসায়ী সরোয়ারা গাজী, মনির ও আবুল হোসেন জানান, শীত বেড়ে যাওয়ায় বেচাকেনা ভালো হচ্ছে। বাচ্চাদের শীতবস্ত্র বিক্রেতা ইউছুপ আলী জানান, শুরুতে শীত কম থাকায় বিক্রি তেমন একটা ছিল না। তবে তীব্র শীত শুরু হওয়ায় বাচ্চাদের পোশাকের চাহিদা বেড়েছে, তেমনি বিক্রি হচ্ছে প্রচুর পরিমাণ। ২০-৩০ টাকা থেকে শুরু করে ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা দর থেকে বিভিন্ন দামের পোশাক রয়েছে। শীত জেঁকে বসায় দরিদ্র ও স্বল্প আয়ের মানুষ ফুটপাত থেকে শীতবস্ত্র কিনছে।

ইত্তেফাক/ ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সুন্দরবনের নদী-খালে হুমকির মুখে চিংড়িসহ ৩০০ প্রজাতির মাছ

স্ত্রী ছেড়ে চলে যাওয়ায় স্বামীর ‘আত্মহত্যা’!

বাঁধ ভেঙে পানিবন্দি হওয়ার আশঙ্কায় অর্ধলক্ষ মানুষ

খুলনায় কলেজছাত্রকে কুপিয়ে জখম, চিকিৎসাধীন মৃত্যু

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

খুলনায় ট্রেনে কাটা পড়ে যুবক নিহত 

খুলনায় দুই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে মুন্না খুনের সম্পৃক্ততা আছে কি না, দেখছে পুলিশ

খুলনায় ১৭ বছর আগের হত্যা মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন

খুলনায় হত্যা মামলার আসামিকে গুলি করে হত্যা