মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

দেশে ১৩ বছরে নার্স নিয়োগ ৩৩ হাজার

আপডেট : ৩০ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৪৫

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের ১৩ বছরে সারা দেশে হাসপাতালগুলোতে ৩৩ হাজার নার্স নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সরকারি হাসপাতালে সেবার মান বাড়াতেই এ উদ্যোগ।

এদিকে নার্সিং সেবার মান আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে নেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর। দক্ষ শিক্ষক গড়তে জাতীয় পর্যায়ে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি প্রশিক্ষণ কলেজ নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে অধিদপ্তর। প্রস্তাব করা হয়েছে স্বতন্ত্র নার্সিং ও মিডওয়াইফারি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের। নার্সিং ও মিডওয়াইফারি শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করতে স্টাইপেন্ড বৃদ্ধিসহ প্রতি বছর কৃতী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির প্রথা চালু করা হয়েছে।

গত দুই অর্থবছরে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জনের জন্য দুই জনকে দক্ষিণ কোরিয়া, তিন জনকে থাইল্যান্ড ও এক জনকে জাপানে পাঠানো হয়েছে। দেশের প্রতিটি নার্সিং কলেজে অত্যাধুনিক ভাচু‌র্য়াল সিম্যুলেশন ল্যাব স্থাপনের কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। নার্সিং ও মিডওয়াইফারি গবেষণা কার্যক্রমকে আরো গতিশীল ও কার্যকর করতে অধিদপ্তরে চালু করা হয়েছে গবেষণা শাখা।

এক সময় দেশে অবহেলিত খাতগুলোর মধ্যে একটি ছিল নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ নির্দেশনা ও পরিকল্পনায় নতুন করে ঢেলে সাজানো হয়েছে এই খাতকে। ফলে প্রতিবছর দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় ৩২ হাজার নার্স প্রশিক্ষণ নিয়ে বের হচ্ছেন। বিপুলসংখ্যক নার্স প্রতি বছর বের হওয়ায় এখন এ খাতের চাহিদা পূরণ করে কর্মসংস্থানের জন্য নার্সদের বিদেশে পাঠানোরও সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া বলেন, করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সেবায় দেশের নার্স ও মিডওয়াইফগণ নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নির্ভীক যোদ্ধা হিসেবে সদা নিয়োজিত থেকে কাজ করে যাচ্ছেন। কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রমেও নার্সদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। এরই ধারাবাহিকতায় সর্বজনীন স্বাস্থ্যসেবাকে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর কাজ করে যাচ্ছে।

নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সিদ্দিকা আক্তার বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে ও সর্বজনীন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকল্পে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নার্সিং ও মিডওয়াইফারি পেশার মানোন্নয়নে গুরুত্বারোপ করেছেন।

বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ)-এর সভাপতি মোহাম্মদ কামাল হোসেন পাটওয়ারী ইত্তেফাককে বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের সব পর্যায়ে উন্নত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ও সর্বজনীন স্বাস্থ্যসেবাকে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে।

এ বিষয়ে স্বাধীনতা নার্সেস পরিষদ (স্বানাপ)’র মহাসচিব মো. ইকবাল হোসেন সবুজ বলেন, কোভিড-১৯ ভয়াবহতার সময় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। নার্সদের সাহস জোগাতে তিনি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতালগুলোও পরিদর্শন করেন। 

ইত্তেফাক/ ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন