বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

টিকাবিরোধীদের বিক্ষোভের মুখে আত্মগোপনে ট্রুডো ও তার পরিবার

আপডেট : ৩১ জানুয়ারি ২০২২, ১২:১৫

করোনাভাইরাসের টিকা বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে কানাডায় ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। এমনকি করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে যে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, তাও তুলে নেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে বিক্ষোভে। পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ও তার পরিবারকে গোপন স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সম্ভাব্য প্রতিহিংসা দমন করতে সতর্ক অবস্থায় পুলিশ। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে এনডিটিভি।

কানাডার অন্টারিওতে অবস্হিত পার্লামেন্ট হিলের সামনে জড়ো হয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন রিভিউ কটেজ থেকে মাত্র চার কিলোমিটার দূরে। তাই নিরাপত্তার কারণে ট্রুডো ও তার পরিবারের সদস্যদের অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। যদিও এক সন্তান করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর ট্রুডো আইসোলেশনেই ছিলেন।

বিক্ষোভকারীদের দাবি, করোনার সব রকম নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি দিতে হবে। পাশাপাশি সরকারের অন্যান্য নীতিরও বিরোধিতা শুরু করেছেন তারা। আন্দোলনকারীদের বড় অংশ ট্রাকচালক। তারা খালি পায়েই দেশের বিভিন্ন স্হানে গিয়ে ইতিমধ্যে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। তারাও স্বাধীনতার দাবি জানিয়েছেন।

আন্দোলনকারীদের সমর্থনে ভিড় বাড়ছে। বিক্ষোভে শিশু এবং প্রতিবন্ধীরাও এসেছে। পুলিশ তাই সতর্ক রয়েছে, বিক্ষোভ যাতে সহিংস না হয়ে ওঠে, সেজন্য পুলিশ সতর্কাবস্হায় রয়েছে।

যদিও আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা শান্তিপূর্ণভাবেই আন্দোলন চালিয়ে যেতে চান। সবাইকে শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। হাতে রয়েছে নানা প্ল্যাকার্ড। তাতে লেখা ‘গড কিপ আওয়ার ল্যান্ড গ্লোরিয়াস অ্যান্ড ফ্রি’ ‘মেক কানাডা গ্রেট অ্যাগেইন’, ‘উই আর হিয়ার ফর আওয়ার ফ্রিডম’, ‘ফাইট ফর ফ্রিডম’ এমনই নানা বক্তব্য।

ইত্তেফাক/টিআর