বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ক্যানসার চিকিৎসাসেবায় বৈষম্য কমানোর ওপর গুরুত্ব দিতে হবে

আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১০:২৭

আমরা ক্যানসার নির্ণয়ে এখনো অনেক পিছিয়ে। ফলে ক্যানসার চিকিৎসা যথাসময়ে শুরু করা যায় না। ক্যানসার চিকিৎসাসেবায় বৈষম্য কমানোও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিশেষ করে ক্যান্সার চিকিৎসাকে বিভাগ ও জেলা পর্যায়ে নিয়ে চিকিৎসা আরো সহজলভ্য করতে হবে বলে জানান সংশ্লিস্ট বিশেষজ্ঞরা। গতকাল শুক্রবার নানা কর্মসূচিতে পালিত হয় বিশ্ব ক্যানসার দিবস। দিবসটি উপলক্ষ্যে রাজধানীর উত্তরাস্থ আহ্ছানিয়া মিশন ক্যানসার অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক আয়োজিত দিবসের আলোচনা সভায় সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা এসব কথা বলেন।

ভার্চুয়াল প্ল্যাটফরমে যোগদান করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, আমাদের দেশে এখনো পর্যন্ত ক্যানসার নির্ণয়ে অনেক পিছিয়ে আছি। দেশে ক্যানসার রোগীর তুলনায় খুব কম সংখ্যক চিকিৎসা কেন্দ্র বা হাসপাতাল আছে। কিন্তু আশার বিষয় হলো—প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আটটি বিভাগে আটটি ক্যানসার হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, দেশে সরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ক্যানসার নিয়ে বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানও কাজ করছে। শুরুতেই ক্যানসার নির্ণয়, প্রতিরোধ ও চিকিৎসা করার বিষয়ে জনগণকে সচেতন করা জরুরি।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তার স্টেকহোল্ডারদের সমন্বয়ে ক্যানসার চিকিৎসায় কাজ করে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আহ্ছানিয়া মিশন ক্যানসার অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতালের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. কামরুজ্জামান চৌধুরী। তিনি বিশ্ব ক্যানসার দিবস সম্পর্কে বলেন, ২০০০ সালে ফ্রান্সের প্যারিসে ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে সিদ্ধান্ত হয় যে, প্রতি বছর ক্যানসার সম্পর্কে কাজ করব। এর উদ্দেশ্য ছিল—ক্যানসার সম্পর্কে যে ভ্রান্ত ধারণা আছে তা কমিয়ে আনা হবে। যেসব কুসংস্কার আছে তা দূর করব। অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল বিভাগের লাইন ডিরেক্টর প্রফেসর ডা. নাজমুল ইসলাম মুন্না, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নন-কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল বিভাগের লাইন ডিরেক্টর প্রফেসর ডা. মোহাম্মদ রোবেদ আমিন, এমসিজিএইচের উপদেষ্টা প্রফেসর ডা. এএমএম শরিফুল আলম, মেজর জেনারেল প্রফেসর ডা. মোহা. আজিজুল ইসলামসহ ক্যানসার বিশেষজ্ঞরা। অনুষ্ঠানে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রেডিয়েশন অনকোলজি বিভাগের জুনিয়র কনসালট্যান্ট ডা. জান্নাতুল ফেরদৌস। আরো বক্তব্য রাখেন, ডা. ফারহানা প্রমুখ। 

ইত্তেফাক/কেকে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

নতুন অ্যান্টিবডি থেরাপি ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই করবে

দুর্যোগ ক্যানসারের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দ্বারপ্রান্তে বিশ্ব