শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

জোড়া সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহ পাকিস্তানের

আপডেট : ০৫ মার্চ ২০২২, ২১:২৩

ওপেনার ইমাম উল হক ও তিন নম্বরে নামা আজহার আলির জোড়া সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহ পেয়েছে স্বাগতিক পাকিস্তান। 

১৬২ ওভারে ৪ উইকেটে ৪৭৬ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে পাকিস্তান।  ইমাম ১৫৭ ও আজহার ১৮৫ রান করেন। জবাবে দ্বিতীয় দিন শেষে ১ ওভারে বিনা উইকেটে ৫ রান করেছে অস্ট্রেলিয়া।

রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের প্রথম দিনই সেঞ্চুরি করেছিলেন ইমাম-উল-হক। তার সেঞ্চুরিতে প্রথম দিন শেষে ৯০ ওভারে ১ উইকেটে ২৪৫ রান তুলেছিল  পাকিস্তান। টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে ১৩২ রানে অপরাজিত ছিলেন ইমাম। ৬৪ রানে অপরাজিত ছিলেন আজহার।

দ্বিতীয় দিনের ৩০তম ওভারের দ্বিতীয় বলে বাউন্ডারি মেরে সেঞ্চুরি তুলে নেন আজহার। টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৯তম সেঞ্চুরি পেতে তিনি খেলেছেন ২৫৭ বল।

আজহারের সেঞ্চুরির পাবার পরের ওভারে আউট হন ইমাম। দলীয় ৩১৩ রানে আজহার-ইমামের উইকেট ভাঙ্গেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। ইমামকে লেগ বিফোর আউট করেন কামিন্স। ৫২৯ মিনিট ক্রিজে থেকে ৩৫৮ বলে ১৬টি চার ও ২টি ছক্কায় ১৫৭ রান করেন ইমাম। ৫২২ বল খেলে ২০৮ রান যোগ করেন ইমাম-আজহার।

এরপর অধিনায়ক বাবর আজম ৩৬ রানে ফিরেন। ডাবল-সেঞ্চুরির পথেই ছিলেন আজহার। কিন্তু ব্যক্তিগত ১৮৫ রানে আজহারকে বিদায় দেন মার্নাস লাবুশানে। ৫৩৫ মিনিট ক্রিজে থেকে ৩৬১ বল খেলে নিজের ইনিংসটি সাজান আজহার। ১৫টি চার ও ৩টি ছক্কা মারেন তিনি।

১৬২তম ওভার শেষে ইনিংস ঘোষণা করে পাকিস্তান। এ সময়  মোহাম্মদ রিজওয়ান ২৯ ও ইফতেখার আহমেদ ১৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। অস্ট্রেলিয়ার লায়ন-কামিন্স ও লাবুশানে ১টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পাকিস্তান : ৪৭৬/৪ ডি, ১৬২ ওভার (আজহার ১৮৫, ইমাম ১৫৭, লাবুশানে ১/৫৩)
অস্ট্রেলিয়া : ৫/০, ১ ওভার (খাজা ৫*, ওয়ার্নার ০*)

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

উইন্ডিস দলের সম্ভাব্য একাদশ

সমুদ্র পথে ঝুঁকিপূর্ণ যাত্রার ব্যাখ্যা দিলো বিসিবি

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে সম্ভাব্য বাংলাদেশ দল

টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশনের প্রস্তুতি শুরু

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সমুদ্রের বিভীষিকা কাটিয়ে আজ টি-টোয়েন্টি মিশনে নামছে টাইগাররা

ভয় কাটিয়ে ভালো আছেন টাইগাররা

আটলান্টিক সাগরে বিপদের মুখোমুখি টাইগাররা, ক্ষুব্ধ বিসিবির প্রতি

সর্বোচ্চ ক্যাটাগরিতে বাবর-রিজওয়ান-আফ্রিদি