সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মির্জাপুরে প্রচণ্ড গরমে বাড়ছে ডায়রিয়া, হাসপাতালে উপচে পড়া ভিড়

আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০২২, ১৩:১৩

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে প্রচণ্ড গরমে ডায়রিয়াসহ নানা রোগ ছড়িয়ে পড়েছে। শিশুদের পাশাপাশি বয়স্ক নারী-পুরুষদের মধ্যেও ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়েছে। ফলে হাসপাতালে বেড়েছে রোগীর চাপ। স্থানীয় হাসপাতাল ও বেসরকারি ক্লিনিক ঘুরে দেখা গেছে, চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের উপচে পড়া ভিড়। হঠাৎ রোগীর চাপ বাড়ায় চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। 

জানা যায়, গত ২০-২৫ দিন ধরে মির্জাপুরে প্রচণ্ড গরম অনুভব হচ্ছে। এতে পৌরসভা, মহেড়া, জামুর্কি, ফতেপুর, বানাইল, আনাইতারা, ওয়ার্শি, ভাতগ্রাম, ভাওড়া, বহুরিয়া, গোড়াই, লতিফপুর, আজগানা, তরফপুর ও বাঁশতৈল ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে ডায়রিয়াজনিত রোগ ছড়িয়ে পড়েছে। সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে রোগীদের ভিড় বাড়ছে। গরমের কারণে শিশুদের জ্বর, শ্বাসতন্ত্র, নিউমোনিয়া, ডায়রিয়া এবং বয়স্ক নারী-পুরুষের মধ্যে ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়েছে।

মির্জাপুর উপজেলা সদরের কুমুদিনী হাসপাতালে দেখা গেছে, বহির্বিভাগে কয়েক শতাধিক অভিভাবক ডায়রিয়াজনিত রোগে আক্রান্ত শিশুদের নিয়ে চিকিত্সার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। শিশু বিভাগে ভর্তিকৃত রোগীদের মধ্যে শিশু সুরাইয়ার মা লাইলী বেগম বলেন, মেয়েকে নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরে ভর্তি রয়েছেন। ডায়রিয়া ও সঙ্গে জ্বর ছিল। এখন আগের চেয়ে তার মেয়ে ভালো আছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক চাইল্ড রিচার্স ফাউন্ডেশনের এক চিকিত্সক বলেন, বহির্বিভাগে প্রতি দিন ২০০-২৫০ জন শিশু চিকিৎসা নিতে আসছে। এদের মধ্যে ৫০-৬০ জন শিশু ভর্তি হচ্ছে। কুমুদিনী হাসপাতালের শিশু বিভাগের এক চিকিত্সক বলেন, বর্তমান সময়ে আবহাওয়া পরিবর্তন এবং গরমের কারণে শিশুদের ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়াসহ বিভিন্ন উপসর্গ বেশি দেখা দিয়েছে। এখানকার চিকিত্সক ও নার্সরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন অসুস্থ শিশুদের চিকিৎসাসেবা দিতে। শিশুদের অভিভাবকদের রোগ প্রতিরোধের জন্য ভালো পোশাক, তরল খাবার ও পুষ্টিজনিত খাবারসহ নানা পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে কুমুদিনী হাসপাতালের সহকারী পরিচালক (পেডিয়াট্রিকস) এমপিএইচ (নিপসম) ডা. এ বি এম আলী হাসান বলেন, বেশ কিছু দিন ধরে প্রচণ্ড গরম অনুভূত হওয়ায় শিশুসহ বয়স্কদের মধ্যে ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন রোগ ছড়িয়ে পড়েছে। বিশেষ করে শিশুদের জ্বর, শ্বাসতন্ত্র, নিউমোনিয়া, ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়েছে। এতে ভয়ের কোনো কারণ নেই। আবহাওয়া পরিবর্তন এবং গরমের কারণে এ রোগ হচ্ছে। যারা চিকিত্সার জন্য আসছেন হাসপাতালের চিকিত্সকগণ রোগীদের যত্ন সহকারে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. ফরিদুল ইসলাম বলেন, উপজেলা সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বিভিন্ন স্বাস্থ্য উপকেন্দ্রে এবং মা-শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক, স্বাস্থ্য সহকারীরা ডায়রিয়া প্রতিরোধের জন্য স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক পরামর্শ ও কাজ করে যাচ্ছেন।

 

ইত্তেফাক/ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

২৫ গ্রামের মানুষের দুঃখ আট কি.মি. কাচা সড়ক

ভূঞাপুরে বন্যার পানি কমছে

পদ্মা সেতু উদ্বোধন: টাঙ্গাইলে নানা কর্মসূচি পালন

মির্জাপুরে পানির চাপে সেতু ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ভূঞাপুরে বন্যায় দুর্ভোগে মানুষ

মির্জাপুরে লাইনচ্যুত ট্যাংকলরি ১৬ ঘণ্টায়ও উদ্ধার হয়নি

ভাঙন রোধে স্বেচ্ছাশ্রমে ফেলা হচ্ছে বালুর বস্তা

নাতির কোলে চড়ে ভোট দিলেন শতবর্ষী কাঞ্চন মালা