শনিবার, ২১ মে ২০২২, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সরকারবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল শ্রীলঙ্কা, রাজাপাকসের পদত্যাগ দাবি 

আপডেট : ০৬ মে ২০২২, ১৯:৪৫

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতে সংসদ ভবনের বাইরে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস এবং জল-কামান ব্যবহার করছে। দেশের অর্থনৈতিক সঙ্কটে সরকারের পদত্যাগ দাবি করে প্রায় ৫ হাজার প্রতিবাদকারী সংসদ ভবনের সামনে জড়ো হয়েছিলেন। 

শহরের অন্যত্র হাজার হাজার মানুষ এই বিক্ষোভে অংশ নিচ্ছেন। এছাড়া, এই বিক্ষোভের অংশ হিসেবে সারা দেশে এক দিনব্যাপী হরতাল পালিত হচ্ছে।

কলম্বো থেকে বিবিসি সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন, হরতালের সময় দোকানপাট বন্ধ রয়েছে এবং লোকজন সরকারের বিরুদ্ধে কালো পতাকা দেখাচ্ছে।

দেশের অর্থনৈতিক দুরবস্থার জন্য এরা প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসের এবং তার ভাই প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের পদত্যাগ দাবি করছেন।

রাজাপাকসা পরিবার বেশ কয়েক বছর ধরে এই দ্বীপ রাষ্ট্রটি শাসন করছে এবং তারা পদত্যাগের দাবি নাকচ করে দিয়েছে। 

ওদিকে, শ্রীলঙ্কার শাসক দলের একজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা নামাল রাজাপাকসে বলেছেন, বর্তমান অর্থনৈতিক সঙ্কট মোকাবিলায় সরকারের আরও প্রস্তুতির দরকার ছিল।

বিবিসির সঙ্গে এক একান্ত সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের ছেলে নামাল বলেন, করোনা মহামারি শ্রীলঙ্কার সঙ্কটকে আরও ঘনীভূত করেছে, যার ফলে খাদ্য, জ্বালানিসহ নিত্য-প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম অনেক বেড়েছে। বিবিসি  

ইত্তেফাক/এসআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ খাদ্য সংকটের হুঁশিয়ারি

শ্রীলঙ্কায় স্কুল বন্ধ, জ্বালানি ঘাটতির কারণে কার্যক্রম সীমিত

ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ঋণখেলাপিতে শ্রীলঙ্কা

পেট্রল ফুরিয়ে গেছে, সামনে আরও ভয়াবহ দিনের শঙ্কা: শ্রীলঙ্কান প্রধানমন্ত্রী 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এশিয়া-আফ্রিকার পার্লামেন্টে বলতে চান জেলেনস্কি

বিশেষ সংবাদ

বিক্রমসিংহেকে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ ও ইতিবাচক কর্মকাণ্ড, তবু আশার আলো নেই 

বিক্ষোভকারীদের পিটুনিতে মারা যান শ্রীলঙ্কার সেই এমপি 

যে কারণে শ্রীলঙ্কায় হঠাৎ ভেঙে পড়লো অর্থনীতি, রাজনীতি ও সরকার