বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

কে জি মোস্তফার কালজয়ী যতগান

আপডেট : ০৯ মে ২০২২, ০২:০৬

কে জি মোস্তফার লেখালেখি শুরু ছাত্রজীবনেই। ওই সময় থেকেই বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা ও সাময়িকীতে তার লেখা কবিতা প্রকাশিত হয়ে আসছে। এক পর্যায়ে গান লিখতে শুরু করেন এবং তার লেখা বেশ কিছু গান অসামান্য জনপ্রিয়তা পায়। ১৯৬০ সাল থেকে চলচ্চিত্র, রেডিও এবং টেলিভিশনে তার লেখা অনেক গান প্রচার হয়।

সিনেমার কালজয়ী এবং সর্বাধিক জনপ্রিয় দুই গান ‘তোমারে লেগেছে এতো যে ভালো চাঁদ বুঝি তা জানে’ এবং ‘আয়নাতে ঐ মুখ দেখবে যখন’-এর গীতিকার তিনি। প্রথম গানটি এহতেশাম পরিচালিত ‘রাজধানীর বুকে’ এবং দ্বিতীয় গানটি অশোক ঘোষ পরিচালিত ‘নাচের পুতুল’ সিনেমায় ব্যবহার করা হয়েছে। দু’টি গানের সুর করেছেন রবিন ঘোষ। প্রথম গানটি গেয়েছেন তালাত মাহমুদ। দ্বিতীয়টি গেয়েছেন মাহমুদুন্নবী। 

এক সময় নাটক ও চলচ্চিত্র পরিচালনার দিকেও ঝুঁকেছিলেন হাজার গানের গীতিকার কে জি মোস্তফা। ‘মায়ার সংসার’, ‘অধিকার’ ও ‘গলি থেকে রাজপথ’ ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন।

কে জি মোস্তফার লেখা কাব্যগ্রন্থের মধ্যে রয়েছে— কাছে থাকো ছুঁয়ে থাকো, উড়ন্ত রুমাল, চক্ষুহীন প্রজাপতি, সাতনরী প্রাণ, এক মুঠো ভালোবাসা, প্রেম শোনে না মানা। তার লেকা গল্পের বই কোথায় চলেছি আমি (সরস আত্মকাহিনী)। এছাড়া শিশু তুমি যিশু, কন্যা তুমি অনন্যা, মজার ছড়া শিশুর পড়া নামে তার তিনটি ছড়ার বইও রয়েছে।

ইত্তেফাক/কেকে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সাক্ষাৎকার

‘নজরুলসংগীতের রক্ষণশীলতা একটু কমানো দরকার’ 

‘শিল্পী-প্রকাশক পারস্পরিক সমঝোতা থাকাটা সবচেয়ে জরুরি’ 

মুনতাসির তুষারের সঙ্গে রাকিবা ঐশীর নতুন গান

বাপ্পী লাহিড়ীর শেষকৃত্য আজ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

১১ বছর বয়সেই গানে সুর দেন বাপ্পী লাহিড়ী

বাপ্পী লাহিড়ী কেন এত গহনা পরতেন?

ভালোবাসার দুই সারথি আলিফ-ফয়সাল

ভালোবাসা দিবসে টিনা