শনিবার, ২১ মে ২০২২, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

উমরান মালিকের গতিকে গুরুত্ব দিতে নারাজ রবি শাস্ত্রী

আপডেট : ০৯ মে ২০২২, ১৫:৪৯

আইপিএলে প্রায় প্রতি বছরই নতুন তারকার জন্ম হয়। এবারের আসরে সেই তারকা উমরান মালিক। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের এই পেসার গতি দিয়ে মুগ্ধ করছেন সবাইকে। প্রতিটি ম্যাচেই দ্রুততম ডেলিভারির পুরস্কার তার হাতেই উঠছে। কয়েক দিন আগে করেছেন আইপিএলের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গতিময় বলটাও।

এমন পারফরম্যান্সের পর দাবি উঠেছে, জম্মু-কাশ্মিরের এই পেসারকে যেন দ্রুত ভারতের জাতীয় দলে নেওয়া হয়। বিশেষ করে আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে উমরান মালিককে দেখতে চান অনেকেই। অজি কন্ডিশনে তার বল কার্যকরী হতে পারে বলে মনে করছেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

তবে এখনই উমরান মালিককে জাতীয় দলে দেখতে চান না ভারতের সাবেক কোচ রবি শাস্ত্রী। তার মতে, উমরানের বলে গতি আছে ঠিকই। কিন্তু লাইন-লেন্থ নেই, যা বড় মঞ্চে জায়গা পাওয়ার মত নয়।

রবি শাস্ত্রী

রবি শাস্ত্রী বলেন, ‘উমরানকে সঠিক জায়গায় বল ফেলতে হবে। অন্যথায় ব্যাটার দ্বিগুণ গতিতে সেই বল বাউন্ডারিতে পাঠাবে। ও হয়তো খুব দ্রুত ভারতের হয়ে খেলবে। তবে ১৫৬ গতিতে বল করে লাইন ঠিক না থাকলে ব্যাটার ২৫৬ গতিতে মারবে। ওর গতি অবশ্যই দুর্দান্ত। কিন্তু ওকে মাথায় রাখতে হবে কোথায় বল ফেললে সেটা কার্যকরী হবে। শুধু গতি দিয়ে ব্যাটারদের চমকে দেওয়া সম্ভব নয়। ওকে বোলিং নিয়ে ভাবনা চিন্তা করতে হবে।’

বোলিংয়ের ওপর আরও নিয়ন্ত্রণ আনতে উমরান মালিককে কী করতে হবে, এমন প্রশ্নে স্টার স্পোর্টসকে রবি শাস্ত্রী বলেন, ‘যখন কেউ তাকে তার মুখের ওপর বলে যে ১৫৬ থাকা ভালো, এটি উত্তেজনাপূর্ণ, উজ্জ্বল, আমরা এটি পছন্দ করছি, তোমার জন্য উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ অপেক্ষা করছে, শিগগিরই তুমি ভারতের হয়ে খেলতে যাচ্ছো। কিন্তু আপনি যদি বলটি সঠিকভাবে ফেলতে না পারেন, তাহলে ১৫৬ এর বল ব্যাটে ২৫৬ গতিতে যাবে। এবং সেটাই এখন ঘটছে।’

উমরানকে উদ্দেশ করে কিছু উপদেশও দিয়েছেন ভারতের সাবেক কোচ। তিনি বলেন, ‘পেস থাকা ভালো। একই সঙ্গে আপনাকে এটাও মাথায় রাখতে হবে যে, বলটি সঠিক জায়গায় ফেলতে হবে। অন্যথায়, নিজেকে নিয়ন্ত্রণে রাখুন এবং ব্যাটারকে চমকে দিতে সেই জায়গাটি অল্প ব্যবহার করুন। এই ধরনের চিন্তা আপনার মাথায় থাকতে হবে।’

শুধু গতির পেছনে ছুটতে থাকলে উমরান নিছক সময়ের অপচয় করছেন বলেও মনে করেন ভারতীয় কিংবদন্তী। শাস্ত্রী বলেন, ‘বিষয়টা যদি তোমার ঠিক মনে না হয়, তাহলে তুমি কেবল সময় নষ্ট করছো। তোমার বল ব্যাটে লাগার পর ২৫০ থেকে ৩০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিতে ছুটবে। টুর্নামেন্ট যত এগোবে উইকেটগুলো তত মন্থর হবে এবং ব্যাটিং সহায়ক হয়ে উঠবে। তাই সঠিক জায়গায় বল ফেলাটা গুরুত্বপূর্ণ।’

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে গতির কোনো গুরুত্ব আছে বলেও মনে করেন না রবি শাস্ত্রী।

ইত্তেফাক/টিএ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

মাঠে ফেরার অপেক্ষা দীর্ঘ হচ্ছে আর্চারের

টেস্টে ফিরতেই হচ্ছে মুস্তাফিজকে

বাংলাদেশকে সুযোগ না দিয়ে ‘ব্যাটিং প্র্যাকটিস’ করলো শ্রীলঙ্কা

ম্যাচ বাঁচাতে লড়ছে শ্রীলঙ্কা, জয়ের জন্য মরিয়া বাংলাদেশ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ঢাকা টেস্টের জন্য বাংলাদেশ দল ঘোষণা

আবারও চোটে শরিফুল, শ্রীলঙ্কা সিরিজ শেষ

আইপিএল

কলকাতাকে বিদায় করে প্লে-অফে লখনউ

ড্রয়ের দিকেই কি এগোচ্ছে চট্টগ্রাম টেস্ট