বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মার্কিন হুঁশিয়ারির মধ্যেই ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে চলছে লড়াই

আপডেট : ১১ মে ২০২২, ১৪:০৪

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে রুশ বাহিনীর সঙ্গে লড়াই অব্যাহত রেখেছে। রাশিয়া ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় ওডেসা বন্দরে রাতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে দীর্ঘ মেয়াদি যুদ্ধের ব্যাপারে মঙ্গলবার (১০ মে) যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া সতর্কতার মধ্যেই এই হামলা চালানো হলো।

দুই মাস ধরে রাশিয়ার আগ্রাসনের মুখোমুখি হওয়া ইউক্রেন ইউরোপীয় ইউনিয়নে তাদের সদস্যপদ প্রসঙ্গে বলেছে, এটি ছিল পুরো মহাদেশের ‘যুদ্ধ ও শান্তি’র প্রশ্ন। ইউক্রেনের এই বক্তব্যের পরে যুক্তরাষ্ট্র দীর্ঘযুদ্ধের হতাশাজনক আগাম সতর্কতা জানালো।

কিয়েভ রাশিয়ার তেল নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পাওয়ার হাউস জার্মানির অবস্থান পরিবর্তন এবং ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহের সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছে।

এদিকে, ইউক্রেনের দক্ষিণে যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়েছে, ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রধান চার্লস মিশেলের সফরের কয়েক ঘন্টার মধ্যে রাশিয়া ইউক্রেনের ওডেসা বন্দরে রাতে বিমান হামলা চালিয়েছে। এতে ভবন সমূহ ধ্বংস হয়েছে। শপিং সেন্টারে আগুন লেগেছে এবং একজনের মৃত্যু হয়েছে।

বিপর্যস্ত মারিউপুল সিটিতে আজভস্টাল স্টিল কারখানায় ক্রমবর্ধমান ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে ইউক্রেনের আরো প্রায় ১ হাজার সৈন্য আটক রয়েছে।

মস্কো গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরু করে তবে ইউক্রেনের প্রতিরোধে রুশ সেনারা কিয়েভ অঞ্চল থেকে সরে যেতে বাধ্য হয়। কিয়েভের মেয়র মঙ্গলবার বলেছেন, রাজধানীর দুই তৃতীয়াংশ বাসিন্দা নগরীতে ফিরে এসেছেন।

পুতিন তার পরিকল্পনার ব্যাপারে কিছু ইঙ্গিত দিয়েছেন, তবে যুক্তরাষ্ট্রের ডিরেক্টর অব ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্স আভরিল হেইনস মঙ্গলবার বলেছেন, রাশিয়ার নেতা দনবাস অঞ্চলে যুদ্ধ থামাবেন না এবং রাশিয়া নিয়ন্ত্রিত মালদোভান ভূখন্ডের সঙ্গে একটি স্থল সংযোগ তৈরিতে তিনি দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

ইত্তেফাক/টিআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ইউক্রেনে রাশিয়ার বিধ্বস্ত ট্যাংক নিয়ে প্রদর্শনী

চলতি বছরের শেষ নাগাদ ক্রিমিয়া পুনর্দখল করবে কিয়েভ

ইউক্রেনে অস্ত্র পাঠানো নিয়ে জার্মানি-পোল্যান্ড দ্বন্দ্ব

মারিউপোলে ২০০ দেহ উদ্ধার

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ইউক্রেন যুদ্ধ বিশ্বের সব অংশকে প্রভাবিত করবে: বাইডেন

আরও জোরালো সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন জেলেনস্কি

যুদ্ধ শেষ করতে পুতিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ চাই: জেলেনস্কি

রাশিয়ার তেল: নিষেধাজ্ঞা জারির ভাবনা ইইউ-র