শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

তেলের পর দাম বেড়েছে পেঁয়াজ-রসুনের

আপডেট : ১৩ মে ২০২২, ১৭:২১

রাজধানীর বড় মার্কেটগুলোতে সয়াবিন তেলের সরবরাহ স্বাভাবিক হলেও পাড়া-মহল্লার সব দোকানে এখনো তেল পাওয়া যাচ্ছে না। আর দুই এক দোকানে পাওয়া গেলেও তা নতুন দামে কিনতে হচ্ছে।

এদিকে সরকার আপাতত আমদানির অনুমোদন না দেওয়ায় দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি কেজি মানভেদে ১০ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। একই সঙ্গে বেড়েছে রসুনের দাম।

শুক্রবার (১৩ মে) রাজধানীর কাওরান, হাতিরপুল, লালবাগ কেল্লার মোড় পলাশী বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

দোকানে পর্যাপ্ত তেল রয়েছে

রাজধানীর কাওরান বাজারের মিলু স্টোরের সত্ত্বাধিকারী বিপ্লব কুমার সাহা জানান, কোম্পানিগুলো তেল দেওয়া শুরু করেছে। গত কয়েকদিনের তুলনায় তেল সরবরাহ অনেকটাই স্বাভাবিক। কোম্পানি যে তেল দিচ্ছে সেগুলোর গায়ে নতুন মূল্য রয়েছে।

লালবাগ চাঁনতারা মসজিদের দোকানি ফয়সাল হোসেন জানান, ঈদের আগে থেকে তার দোকানে তেল নেই। ঈদের পর কোম্পানির লোকজন আসলেও তেল দিতে পারেনি। অনেক ক্রেতা তেল কিনতে এসে ফিরে যাচ্ছেন।

তবে তার পাশের রুবেল স্টোরের মালিক মো. রুবেল হোসেন জানান, তিনি সরকার নির্ধারিত নতুন দামে সয়াবিন বিক্রি করছেন। চাহিদার তুলনায় কোম্পানি থেকে কম সরবরাহ করছে।

দোকানে পর্যাপ্ত তেল রয়েছে

কাওরান বাজারের মায়ের দোয়া স্টোর, বিসমিল্লাহ স্টোর, আল আমিন ট্রেডার্স, আলী স্টোর, জব্বার স্টোর, মিজান এন্টারপ্রাইজে গিয়ে দেখা যায়- পাঁচ লিটারের সয়াবিনের বোতল আছে। তবে সবে দোকানে এক লিটার ও দুই লিটারের বোতাল নেই।

শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, দেশি রসুন প্রতি কেজি ৮০ থেকে ৯০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। এক সপ্তাহ আগে দেশি রসুন ৬০ থেকে ৭০ টাকা ছিল। আর আমদানি করা রসুন বিক্রি হচ্ছে ১৩০ থেকে ১৪০ টাকা, যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ১০০ থেকে ১২০ টাকা। ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধে ফের পেঁয়াজের দাম বাড়তে শুরু করেছে। রাজধানীর খুচরা বাজারে এক সপ্তাহে কেজিতে ২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। এক সপ্তাহ আগে বাজারে দেশি পেঁয়াজ মানভেদে ৩০-৩৫ টাকা বিক্রি হয়েছে। তবে বাজারে পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে।

দোকানে পর্যাপ্ত তেল রয়েছে।

এদিকে ১২ মে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, গত ৫ মে নতুন দাম নির্ধারণের পর ৬ ও ৭ মে সাপ্তাহিক বন্ধ ছিল। ফলে পেমেন্ট করে মাল নিয়ে তা ডিস্ট্রিবিউশন করতে ব্যবসায়ীদের সময় লেগেছে।  বাজারে তেল না থাকার যে সংকট তৈরি হয়েছে তা কয়েকদিনের মধ্যে কেটে যাবে। 

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে দেশের ভোজ্যতেলের নতুন দাম নির্ধারণ করে দেয়  সরকার। যেখানে বোতলজাত প্রতি লিটার সয়াবিন ১৯৮ টাকা, ৫ লিটারের বোতল ৯৮৫ টাকা, খোলা সয়াবিন ১৮০ টাকা এবং পাম অয়েলের দাম ১৭২ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

গত কয়েকদিনে দেশের বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে মজুদ করা প্রচুর  সয়াবিন তেল উদ্ধার করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। এ সময়  জরিমানা ও কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সিলগালা করা হয়। 

ইত্তেফাক/ইউবি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

লিটারে আরও ৭ টাকা বাড়লো সয়াবিন তেলের দাম

দেশে স্বর্ণের দামে রেকর্ড

আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়েছে, সে খবর কেউ বলছে না: বাণিজ্যমন্ত্রী

ফের বাড়লো সয়াবিন তেলের দাম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিশেষ সংবাদ

বিশ্ববাজারে পণ্যমূল্য বৃদ্ধির প্রভাব আরও ২ বছর থাকতে পারে: বিশ্বব্যাংক

তেলের দাম নিয়ন্ত্রণে রিটের আদেশ আজ 

শুক্রবার থেকে রশিদ ছাড়া ভোজ্যতেল কেনাবেচা বন্ধ

ভোজ্যতেলে ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি এফবিসিসিআইয়ের