শনিবার, ২১ মে ২০২২, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

যেভাবে গ্রেফতার হলেন পি কে হালদার

আপডেট : ১৪ মে ২০২২, ২৩:১৮

বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ মামলার মূল অভিযুক্ত প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদারকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে গ্রেফতার করেছে দেশটির এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। শনিবার (১৪ মে) দুপুরে তাকেসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বসবাস করতেন পি কে হালদার। প্রদেশটির উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার অশোক নগরের একটি বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন তিনি। পশ্চিমবঙ্গে শিব শঙ্কর হালদার নামে পরিচয়পত্র বানিয়ে পালিয়ে ছিলেন পি কে হালদার। তিনি শিব শঙ্কর পরিচয়ে পশ্চিমবঙ্গে রেশন কার্ড, ভারতীয় ভোটার আইডি কার্ড, প্যান ও আধার কার্ড জোগাড় করেছিলেন।

শুক্রবার থেকে  পি কে হালদারের ব্যক্তিগত আইনজীবী সুকুমার মৃধার সম্পত্তির সন্ধানে কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়েছে ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। এদিন ভোরে উত্তর ২৪ পরগণার অশোকনগর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণার পোলেরহাটে দুটি বাড়িসহ বিভিন্ন জায়গায় সুকুমার মৃধার বেআইনি সম্পত্তির খোঁজে অভিযান শুরু করে ইডি। কর্মকর্তারা বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে এই তল্লাশি চালান।  

শনিবার পি কে হালদারের সম্পত্তির খোঁজে দ্বিতীয় দফায় আবারও অভিযান শুরু করে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানীখ্যাত মুম্বাই এবং রাজধানী দিল্লিতেও অভিযান চালায় ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের তদন্তকারী এই সংস্থা। পরে অশোকনগরের একটি বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  

 

 

ইত্তেফাক/ইউবি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিশেষ সংবাদ

ভারতে পি কের ১৫২ কোটি টাকার সম্পত্তির সন্ধান

আরও ১০ দিনের রিমান্ডে পি কে হালদার 

বিশেষ সংবাদ

কলকাতায় আবাসন খাতে পি কে হালদারের বিপুল বিনিয়োগ!

বিশেষ সংবাদ

হোটেল রুমে মোবাইল ফোন রেখে সীমান্ত পাড়ি দেন পি কে হালদার

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

পি কে হালদারকে পাওয়া যাবে, টাকা কি পাওয়া যাবে?

পি কে হালদারকে গ্রেফতারে ভারতকে ধন্যবাদ জানানো উচিত: হাইকোর্ট

রিমান্ডে বিমর্ষ ছিলেন পি কে হালদার

পি কে হালদারের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক তথ্য আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী