মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

‘ভিউ বেশি মানেই কাজটি মানসম্পন্ন তা ভাবা ঠিক না’

আপডেট : ২১ মে ২০২২, ১৮:৫৫

ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আবদুন নূর সজল বর্তমানে চলচ্চিত্রের দিকেই বেশি মনোযোগী হচ্ছেন। তবে অভিনয়ের মাধ্যম ভাগ নিয়ে বরাবরই আপত্তি রয়েছে তার। বর্তমানে নতুন সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকা এই অভিনেতা নিজের অভিনয় পরিকল্পনাসহ ইন্ডাস্ট্রির নানা দিক কথা বললেন ইত্তেফাকের সঙ্গে।

সম্প্রতি দেশের বাইরে থেকে পুরস্কৃত হয়েছেন। পুরস্কারটি নিয়ে জানতে চাই

— ‘কাগজের মানুষ’ শর্টফিল্মে অভিনয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ ভারতের একটি চলচ্চিত্র উত্সব আমাকে সেরা অভিনেতার পুরস্কার প্রদান করেছে। কোনো কাজের জন্য পুরস্কার পাওয়া অবশ্যই খুব আনন্দের এবং সম্মানের। আর দেশের বাইরে থেকে পুরস্কারপ্রাপ্তি! সেটা তো চিন্তাতিত বিষয়। আমি মনে করি পুরস্কারটা শুধু তখন একজন অভিনেতার, একজন পরিচালকের নয়, বরং পুরস্কারটি দেশের, দেশের মানুষের। এছাড়া সবচেয়ে আনন্দের বিষয়, সম্প্রতি মা দিবসে আমার ‘মা’ মা পদক পেয়েছেন। সন্তান হিসেবে এটা আমার জন্য অনেক গর্বের যে, মায়ের হাতে একটি পুরস্কার তুলে দিতে পারলাম।

‘সুবর্ণ ভূমি’ নামের নতুন সিনেমার শুটিং করছেন। সিনেমাটিতে আপনার চরিত্র ও গল্পের প্রেক্ষাপটে এটি নির্মিত হচ্ছে?

সিনেমাটিতে আমি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার চরিত্রে অভিনয় করছি। আর সিনেমাটির গল্প এখনই খোলাসা করতে চাচ্ছি না। এটুকু বলবো, মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন অনেক ঘটনাই ঘটেছে। মুক্তিযোদ্ধাদের জীবন, সে সময়ের সংগ্রাম, সম্পর্কগুলোর টানাপোড়েন, কিছু মানুষের মৃতু্য এবং কিছু মানুষের বে‌েঁচ থাকা, ঠিক এমনই একটি গল্পে সিনেমাটি নির্মিত হচ্ছে।

এই সময়ে মুক্তিযুদ্ধনির্ভর একটি গল্প উপস্হাপন করতে কোন প্রতিকূলতার সম্মুখীন হতে হচ্ছে?

৫০ বছর আগের একটি গল্প এই সময়ে এসে তুলে ধরা সত্যি অনেক কঠিন। কেননা, সেই সময়ের বাংলাদেশ আর এখনকার বাংলাদেশ এক নেই। সে সময়ের মতো লোকেশন খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। তবে জাহিদ হাসান ভাই খুবই যত্ন নিয়ে কাজটি করছেন। একটা কলম পর্যন্ত যেন সে সময়ের মতো হয় সেই বিষয়টিও আমলে নিচ্ছেন। আমরাও চেষ্টা করছি সেই সময়ের একজন হওয়ার।

এর বাইরে সামনে কোন চলচ্চিত্রগুলো মুক্তি পাবে?

‘জিন’, ‘সংযোগ’, ‘১৯৭১ সেইসব দিন’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে।

গল্পনির্ভর চলচ্চিত্রেই অভিনেতা সজলকে বেশি দেখছেন দর্শকরা। এর বিশেষ কোনো কারণ আছে কি-না?

দেখুন, ছোটবেলায় যে সিনেমাগুলো দেখেছি সেগুলোও কিন্তু গল্পনির্ভরই ছিল। শুধু আমি না, সবারই গল্পনির্ভর কাজের দিকে আগ্রহ একটু বেশি থাকে। কারণ গল্পই তো একটি সিনেমার প্রাণ। গল্প সুন্দর হলে, আমরা ঠিকঠাক উপস্হাপন করলে তবেই সিনেমাটি সার্থক হয়।

চলচ্চিত্রের প্রচারণা নিয়ে বরাবরই ঘাটতি লক্ষ্য করা যায়। যদিও এবারের ঈদে আপনারা সবাই মুক্তি পাওয়া সিনেমাগুলোর প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন। এই চর্চা অব্যাহত থাকবে কি-না?

অবশ্যই এই ধারাবাহিকতা আমাদের বজায় রাখা উচিত। যে শিল্পী বা নির্মাতার সিনেমা হোক, সেটা যেন সবার সিনেমা হয়। পাশাপাশি দর্শকদের এখানে দায় রয়েছে। তাদের উচিত দেশীয় সিনেমা বাঁচাতে হলে আসতে হবে। আমরা সবাই এক হয়ে চেষ্টা করলে তবেই চলচ্চিত্রের সুদিন ফিরে আসবে।

ইদানিং নাটকের চেয়ে চলচ্চিত্রে আপনার পদচারণা বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তাহলে কী নাটক থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন?

বিষয়টি আসলে তেমন না। আমি অভিনয়কে ভালোবাসি, তাই মাধ্যমের মাঝে পার্থক্য খঁজি না। হ্যাঁ, এটা সত্য এক সময় প্রচুর নাটক করেছি। কারণ নাটক আমার ভালোবাসার জায়গা। অন্যদিকে চলচ্চিত্র আমার স্বপ্নের জায়গা। তবে খুব বেশি চলচ্চিত্র করেছি তেমনও না। যে কাজগুলো আমার পছন্দ হয়েছে সেই কাজগুলো সততা ও পরিশ্রমের সঙ্গে করার চেষ্টা করেছি।

ঈদের নাটকগুলোর ভিউ নিয়ে যথেষ্ট মাতামাতি হলেও প্রশংসার জায়গায় প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে কী মন্তব্য করবেন?

দেখুন, এই বিষয়টি আপেক্ষিক। এটা নিয়ে বলার কিছু নেই। ভিউ বেশি মানেই কাজটি মানসম্পন্ন তা ভাবা ঠিক না। একটা ভালো গল্পে ভিউ নাও হতে পারে। আবার মোটামুটি গল্পের কাজের ভিউও বেশি হতে পারে। ভালো গল্পের কাজ হলে প্রশংসিত হবেই। সেটার ভিউ হোক বা না হোক।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

যমজ ছেলে চান আলিয়া ভাট!

বৈশাখী টিভিতে ঈদ আয়োজনে তারকাবহুল ২৭ নাটক

তাদের ‘সাত জনমের ভালোবাসা’

জনির টাকা পরিশোধে মূল্যবান উপহার বিক্রি করতে হবে অ্যাম্বারকে!

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হলেন শাকিব খান, পেয়েছেন গ্রিন কার্ড

আসিফ ও প্রীতির বিয়ের গল্প!

‘সন্তানের নাম আমরা ঠিক করে রেখেছি কিন্তু এখন বলবো না’

‘রিকশা গার্ল’ তানজিন তিশা