সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ছাত্রকে ধর্ষণের অভিযোগে মাদরাসাশিক্ষককে গণপিটুনি 

আপডেট : ২৩ মে ২০২২, ১৯:০০

সিলেটের গোলাপগঞ্জে এক মাদরাসাছাত্রকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাদরাসাশিক্ষক ক্বারি মাওলানা ফয়েজ উদ্দিনকে (৫০) গণপিটুনি দিয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। 

সোমবার (২৩ মে) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ হারুনূর রশীদ চৌধুরী। এ ঘটনায় ভিকটিমের চাচাতো ভাই গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

ফয়েজ উদ্দিন পৌর এলাকার মুহাম্মাদিয়া তাহফিজুল কুরআন মাদরাসার পরিচালকের দায়িত্বে রয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পৌর এলাকার উপজেলা পরিষদের পাশে অবস্থিত মুহাম্মাদিয়া তাহফিজুল কুরআন মাদরাসার একজন ছাত্রকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে রবিবার (২২ মে) রাতে ওই ছাত্রের স্বজনরা মাওলানা ফয়েজ উদ্দিনকে মাদরাসায় এসে গণপিটুনি দেন। এরপর তারা গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশকে খবর দিয়ে তাদের হাতে তুলে দেন। 

পরিবার জানায়, মাদরাসার ওই শিক্ষক গত মার্চ মাসে প্রথম ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেছেন। এরপর গত শনিবার (২১ মে) আবারও জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করলে ওই শিক্ষার্থী ভয়ে মাদরাসা থেকে বাড়িতে পালিয়ে যায়। পরদিন মাদরাসা যেতে অপারগতা প্রকাশ করলে পরিবারের নিকট ওই শিক্ষার্থী সবকিছু খুলে বলে। এরপর রবিবার রাতে ফয়েজ উদ্দিনকে এলাকাবাসী গণপিটুনি দেয়। 

এবিষয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ হারুনূর রশীদ চৌধুরী বলেন, ‘আসামিকে আজ ২৩ মে কোর্টে পাঠানো হয়েছে।’ 

ইত্তেফাক/এএইচ/এএএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের পাশে প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটি

মুরাদনগরে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা, গ্রেফতার ১

সীমান্তবর্তী বানভাসি মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিলো বিজিবি

বিশেষ সংবাদ

নৌকা বা হেলিকপ্টার দেখলেই ত্রাণের জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন বানভাসিরা

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিশেষ সংবাদ

ঘরে ফিরতেও শত বাধা

৬ দিন পর চালু ওসমানী বিমানবন্দর

চালু হচ্ছে ওসমানী বিমানবন্দর 

সিলেট-সুনামগঞ্জের বন্যার্তদের জন্য খাদ্যসামগ্রী পাঠালেন রাসিক মেয়র