রোববার, ০৭ আগস্ট ২০২২, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

শ্রীলঙ্কায় স্কুল ও সরকারি অফিস বন্ধ ঘোষণা

আপডেট : ১৮ জুন ২০২২, ১১:২০

জ্বালানি সংকটের কারণে দুই সপ্তাহের জন্য সরকারি অফিস ও স্কুল বন্ধ ঘোষণা করেছে আর্থিক দুর্দশাগ্রস্ত শ্রীলঙ্কার সরকার। জ্বালানি আমদানির মূল্য পরিশোধের মতো ডলার নেই শ্রীলঙ্কার কাছে। তাই গণপরিবহন চলাচল প্রায় বন্ধ। এমন পরিস্থিতিতে এ ঘোষণা দিল সরকার। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ব্যাংকক পোস্ট।

শুক্রবার (১৭ জুন) দেশটির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়, যা আগামী সোমবার থেকে আগামী দুই সপ্তাহের জন্য কার্যকর হবে।

দেশটিতে পেট্রোল ও ডিজেলের তীব্র সংকটের মধ্যে সব বিভাগ, সরকারি প্রতিষ্ঠান এবং স্থানীয় কাউন্সিলকে সীমিত পরিসরে পরিষেবা চালু রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় বলা হয়, গণপরিবহন সংকটের পাশাপাশি ব্যক্তিগত যানবাহনের জ্বালানি ব্যবস্থা করতে না পারার কারণে কর্মক্ষেত্রে সশরীরে থাকা কর্মীদের সংখ্যা ব্যাপকভাবে হ্রাস করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ বছরের শুরু থেকে দেশটির মানুষ ৯২ শতাংশ বেশি দাম দিয়ে পেট্রল ও ৭৬ শতাংশ বেশি দামে ডিজেল কিনেছেন।

১৯৪৮ সালে ব্রিটিশদের থেকে স্বাধীনতা লাভের পর দক্ষিণ এশিয়ার এই দ্বীপরাষ্ট্রের অর্থনীতি কখনও এমন খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যায়নি। দীর্ঘ সাড়ে তিন দশকের গৃহযুদ্ধের সময় সামরিক খাতে ব্যয় শ্রীলঙ্কার অর্থনীতিকে চাপে ফেলেছিল। করোনা পরিস্থিতিতে পর্যটন শিল্প প্রায় স্তব্ধ হয়ে যাওয়ার প্রভাব পড়েছে রফতানি থেকে আসা আয়ে। 

ইত্তেফাক/এমআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

শ্রীলঙ্কায় এবার কমলো নিত্যপণ্যের দাম

আমার যাওয়ার মতো বাড়ি নেই: বিক্রমাসিংহে

যেকারণে ঐক্যের সরকার চান শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট

হামলা থেকে যেভাবে প্রাণে বেঁচেছিলেন গোটাবায়া 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের পতাকা চুরির দায়ে এক ব্যক্তি আটক

আইএমএফের সঙ্গে শ্রীলঙ্কার আলোচনা ফের শুরু

শ্রীলঙ্কার জন্য নতুন অর্থায়ন প্রত্যাখ্যান করলো বিশ্বব্যাংক 

শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থার মেয়াদ বাড়লো