শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

'সাংবাদিকরা মঙ্গল গ্রহের প্রাণী'

আপডেট : ২০ জুন ২০২২, ০৩:২৩

সাংবাদিকদের মঙ্গল গ্রহের প্রাণী বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ ইলিয়াস। 

চবি ছাত্রলীগের বগি ভিত্তিক উপগ্রুপ বিজয়ের বেশ কয়েকজন অনুসারীর দ্বারা সাংবাদিকদের হেনস্থা ও হুমকির ঘটনায় জানতে চাইলে এক গণমাধ্যম প্রতিনিধির কাছে এমন মন্তব্য করেন বিজয় গ্রুপের একাংশের এ নেতা। এ সময় তিনি বলেন, 'সাংবাদিকরা মঙ্গল গ্রহের প্রাণী। তারা যেটা ইচ্ছা সেটাই করতে পারবে। এটাই আমার বক্তব্য'

এর আগে রোববার (১৯ জুন) বেলা ১২টায় চবি প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বরাবর সাংবাদিকদের হেনস্থা ও হুমকির ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (চবিসাস)।

এ ঘটনায় অভিযুক্তরা হলেন- লোকপ্রশাসন বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল জোবায়ের (নিলয়), অর্থনীতি বিভাগের ২০১৬-১৭ সেশনের রানা আহমেদ ও ওয়ায়দুল হক লিমন, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগে ২০১৬-১৭ সেশনের আশিষ দাস, দর্শন বিভাগের ২০১৭-১৮ সেশনের সাজ্জাদুর রহমান, সংস্কৃত বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের তুষার তালুকদার বাপ্পা, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের ২০১৭-১৮ সেশনের আবির আহমেদ ও একই বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের জাহিদুল ইসলাম এবং সংস্কৃত বিভাগের ২০১৯-২০ সেশনের প্রমিত রুদ্র।

অভিযুক্ত কর্মীরা গেল বৃহস্পতিবার রাত ১ টার দিকে আলাওল হলে চবি সাংবাদিক সমিতির সভাপতি সাইফুল ইসলামের রুমে এসে তাকেসহ এই ব্লকে অবস্থানরত সাংবাদিকদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এ সময় সাংবাদিকদের হল থেকে বের করে দেওয়ারও হুমকি দেন তারা। গালিগালাজের এক পর্যায়ে তারা বলেন— 'এই হল আমাদের। হল আমরা লিজ নিছি। যখন ইচ্ছা তোদেরকে হল থেকে বের করে দেব৷ এই রুম যদি তোদের হয় পুরা হল আমাদের। কি করবি তোরা? নিউজ করবি তোরা? কর। আমরা সাংবাদিক খাই না। প্রক্টর খাই না।'

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, আমরা অভিযোগপত্রটি গ্রহণ করেছি। এছাড়া প্রমাণ হিসেবে বেশকিছু অডিও রেকর্ডও আমাদের হাতে এসেছে। এমন অশালীন আচরণ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছে কখনোই কাম্য না। আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করে বিষয়টি ভালোভাবে খতিয়ে দেখে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবো। ইতোমধ্যে হল প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছি আমরা।

ইত্তেফাক/এসটিএম