শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

প্যারিসে গাফ্ফার চৌধুরীকে নিয়ে নাগরিক স্মরণসভা

আপডেট : ২০ জুন ২০২২, ০৯:৫০

যতদিন বাঙালি জাতি থাকবে, বাংলা ভাষা থাকবে তত দিন পৃথিবীর সব বাঙালির কাছে আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীর নামটি মনে থাকবে।

রবিবার (১৯ জুন) ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি মিলনায়তনে ফ্রান্স বাংলা প্রেস ক্লাব আয়োজিত আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীকে নিয়ে নাগরিক স্মরণসভায় এসব কথা বলেন বক্তারা।

ফ্রান্স বাংলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি দেবেশ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে ও অধ্যাপক অপু আলমের সঞ্চালনায় এসময় বাংলাদেশ থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত থেকে বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন এবং নাট্যজন নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু।

সভার শুরুতে সদ্য প্রয়াত সাংবাদিক, কলামিস্ট আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এসময় ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, ‘গাফ্ফার চৌধুরী একুশে ফেব্রুয়ারি গানের রচয়িতা হলেও তিনি বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী সাংবাদিক হিসেবেও খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। তিনি তার সৃষ্টির মাঝে অমর হয়ে থাকবেন। ঢাকার জাতীয় প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে কিংবদন্তী এ মানুষটির প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পেরেছি, এজন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িকতার ক্ষেত্রে আবদুল গাফফার চৌধুরী কখনোই আপোষ করেননি।’ এসময় তিনি কিংবদন্তী এই সাংবাদিকের সব স্মৃতি সংরক্ষণের অনুরোধ জানান।

আলোচনার এক পর্যায়ে গাফফার চৌধুরী রচিত “আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি” আবৃত্তি করেন প্যারিসের আবৃত্তিকার সাইফুল ইসলাম।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, জাকির হোসেন, ইকবাল হাসমী, মোতালেব আহমেদ, সুব্রত ভট্টাচার্য শুভ, ফয়সল আওহমেদ, চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রকাশ রায়, আলী আহমেদ জুবায়ের, এমদাদুল হক, সাখাওয়াত হোসেন, সাংবাদিক ইমরান মাহমুদ, সাংবাদিক লুতফুর বাবুসহ প্রবাসী শিল্পী, সাহিত্যিক, লেখক, সাংবাদিক ও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

ইত্তেফাক/মাহি