বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভূঞাপুরে বন্যার পানি কমছে

আপডেট : ২৫ জুন ২০২২, ১৮:০১

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনা নদীসহ জেলার সবকটি নদীতে পানি কমতে শুরু করেছে। জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি পোড়াবাড়ী পয়েন্টে ১৫ সেন্টিমিটার কমে বিপত্সীমার ৩৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, ঝিনাই নদীর পানি জোকারচর পয়েন্টে ১২ সেন্টিমিটার কমে বিপত্সীমার ৪৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, ধলেশ্বরী নদীর পানি এলাসিন পয়েন্টে ২ সেন্টিমিটার কমে বিপত্সীমার ৩১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে এখনো পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন বানভাসি মানুষ। 

সরেজমিনে উপজেলার গাবসারা ইউনিয়নে গিয়ে দেখা গেছে, যমুনা নদীর পানিতে ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রামে পানিতে তলিয়ে রয়েছে ঘরবাড়ি। অনেক পরিবার ঘরবাড়ি ফেলে অন্যত্র চলে গেছেন। আবার অনেকেই ঘরেই মাচা উঁচু করে তাতে চরম কষ্টে দিনপার করছে। এছাড়া উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের কষ্টাপাড়া, ভালকুটিয়া ও চিতুলিয়াপাড়া এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে।

ভূঞাপুর উপজেলার বেলটিয়াপাড়ার আলম মন্ডল বলেন, এক সপ্তাহ ধরে পানি উঠেছে বাড়িতে। এতে ঘরে পানি ওঠায় নৌকায় থাকা এবং খাওয়া দাওয়া করতে হয়। তার স্ত্রী বিমলা বেগম বলেন, প্রায় সময়ই পানিতে থাকতে হয়। এতে হাত ও পায়ে ঘায়ের মতো হয়েছে। 

উপজেলার গাবসারা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহআলম শাপলা বলেন, সাত দিন ধরে চরাঞ্চলের বেশ কিছু গ্রাম পানিতে তলিয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত বন্যার্তদের জন্য কোন বরাদ্দ পাওয়া যায়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. ইশরাত জাহান জানান, উপজেলায় ৪ হাজার পরিবার বন্যায় আক্রান্ত হয়েছে। বন্যার্তদের ত্রাণ সহায়তার জন্য বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। পেলেই ত্রাণ কার্যক্রম শুরু করা হবে। 

ইত্তেফাক/এআই