শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

৬ লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পে ধীর গতি, যানজটে দুর্ভোগ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড

আপডেট : ২৬ জুন ২০২২, ০২:০০

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড ছয় লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের কার্যক্রম শেষ হওয়ার কথা ছিল ১৭ মাসের মধ্যে। কিন্তু নির্ধারিত সময় প্রায় ফুরিয়ে এলেও শেষ হয়নি সড়ক সম্প্রসারণ। এদিকে বিগত এক বছর যাবত চলমান কাজের কারণে সড়কে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে পড়ছেন যাত্রী ও যানবাহনের চালকরা। কাজের শম্ভুকগতিতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন জেলার লাখ লাখ মানুষ। সবার একটি প্রশ্ন, এই সড়কের কাজের এমন কচ্ছপগতির কারণ কী ? কবে কমবে মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ। 

নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের সূত্র মতে, সড়ক ছয় লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ৪৪৯ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। এতে সড়কটি প্রশস্ত হবে ১২৯ ফুট। এই প্রকল্পের আওতায় সড়কের তিনটি পয়েন্টে হবে আন্ডারপাস ও দুটি পয়েন্টে হবে ফুটওভারব্রিজ। সাইনবোর্ড ও জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে ফুটওভারব্রিজ নির্মাণ করা হবে এবং শিবু মার্কেট, জালকুড়ি ও ভুঁইগড়ে আন্ডারপাস নির্মাণ করা হবে। জানা যায়, যানজট নিরসনের উদ্দেশ্যে ২০১৯ সালের ৮ জুলাই ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংকরোড ছয় লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের প্রস্তাব পরবর্তী প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রকল্পটি জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির সভায় উপস্থাপন করা হলে প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়। ২০২১ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি প্রকল্প বাস্তবায়নে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর এনডিই-টিবিএল-এইচটিবিএল-জেভি নামক যৌথ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করে। প্রকল্প বাস্তবায়নের মেয়াদ নির্ধারণ হয় ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত। কিন্তু মেয়াদ পূর্তির শেষ সময়েও প্রকল্পের বৃহদাংশ কাজ অবশিষ্ট রয়েছে। কার্য সম্পাদনে প্রকল্পের নতুন মেয়াদ ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত নির্ধারিত হয়েছে। এদিকে সড়কে দীর্ঘ সময়ের দৃশ্যমান কার্যক্রমের ফলে অধিক যানজট হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। বিগত কয়েক মাসে এই ভোগান্তি চরমে দাঁড়িয়েছে। 

সরেজমিনে দেখা যায়, ভুঁইগড় ও জালকুড়িসহ শিবুমার্কেট এলাকায় সড়ক প্রশস্তকরণের কার্যক্রম চলছে। সাইনবোর্ড থেকে শিবুমার্কেট পর্যন্ত একাধিক স্থানে আংশিক কাজ করা হয়েছে। সড়কের একাধিক স্হানে এক লেন দিয়েই গাড়ি যাওয়া-আসা করায় দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। আধাঘণ্টার সড়ক পাড়ি দিতে দেড় থেকে দুই ঘণ্টা পেরিয়ে যায়।

নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সাখাওয়াত হোসেন এ বিষয়ে বলেন, ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ছয় লেন প্রকল্পের কাজ শুরু করার পরবর্তী সময়ে তাদের একাধিক বিপাকে পড়তে হয়েছে। লিংক রোডের দুই পাশে একাধিক বার বর্জ্য ও অবৈধ স্থাপনা সরাতে সময় লেগেছে। সড়কের নিচে বৈদ্যুতিক খুঁটি, গ্যাস লাইন থাকায় সড়কের কিছু কিছু অংশ বাদ দিয়ে কাজ করতে হয়েছে। কাজ চলমান রয়েছে । শিগ্গিরই এই প্রকল্পের কাজ শেষ হবে।

ইত্তেফাক/ইআ