শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নরসিংদীতে সেফটি ট্যাংকির বিষাক্ত গ্যাসে তিনজনের মৃত্যু

আপডেট : ২৭ জুন ২০২২, ২০:১৮

সেফটি ট্যাংকের ভিতরে পড়ে যাওয়া শিশুকে উদ্ধার করতে গিয়ে শিশুসহ তিন জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হচ্ছে আনিছ (৯), বায়েজিদ আহমেদ (২২) ও জাহিদ (২৮)। সোমবার (২৭ জুন) দুপুরে নরসিংদী সদর উপজেলার মাধবদীস্থ গজারিয়ারচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মো. কাউছার মিয়ার শিশু পুত্র আনিছ বাড়ির পাশের রাস্তায় একটি ছেনি (মাছ উলটানোর কাজে ব্যবহৃত) হাতে নিয়ে খেলা করার সময় হঠাৎ ছেনিটি তার হাত থেকে ছিটকে সেফটি ট্যাংকের ভিতরে পড়ে যায়। আনিছ ছেনিটি উদ্ধার করতে গেলে সেও সেফটি ট্যাংকির ভিতরে পড়ে যায়।

আশপাশের লোকজনের ডাক চিৎকারে পাশের বাড়িতে কর্মরত থাকা রং মিস্ত্রী বায়েজিদ আহমেদ ও সেনিটারি মিস্ত্রী জাহিদ শিশুটিকে উদ্ধার করতে সেফটি ট্যাংকির ভিতরে নামে এবং শিশুটিকে উদ্ধার করে। পরে সেফটি ট্যাংকির বিষাক্ত গ্যাসে ঘটনাস্থলেই বায়েজিদ আহমেদ ও জাহিদ মারা যায়। 

পরে মুমূর্ষ অবস্থায় শিশু আনিছকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে প্রেরণ করলে পথিমধ্যে আনিছ মারা যায়। নিহত জাহিদ আহমেদ সদর উপজেলার উত্তরসাটিরপাড়া মহল্লার মো. নজরুল ইসলামের ছেলে। এবং জাহিদ বাসাইল মহল্লার মো. এরশাদ মিয়ার ছেলে বলে জানা গেছে। 

এ ব্যাপারে মাধবদী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশগুলো ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। 

ইত্তেফাক/জেডএইচডি