শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ডায়ানা অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি ফায়েজ

আপডেট : ০২ জুলাই ২০২২, ১৩:১৬

সামাজিক কাজে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এই বছর ব্রিটিশ রাজ পরিবার থেকে সম্মানজনক ডায়না অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন বাংলাদেশের তরুণ সামাজিক উদ্যোক্তা ফায়েজ বেলাল। তার প্রতিষ্ঠিত উদ্যোগ বিওয়াইএস’র মাধ্যমে মানসম্পন্ন শিক্ষা, ক্লাইমেট একশন, নারীপুরুষ সমানাধিকারসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য এই স্বীকৃতি প্রদান করা হয়। 

‘অভয়, গার্লস সামিট, স্বপ্নজয়, সম্পর্কে ভালো থাকুক দেশ, শী ইস দ্য ফার্স্ট, আমি থেকে আমরা, ইয়ুথ ফেস্ট, বরিশাল নুক’সহ নানা উদ্ভাবনী প্রকল্পের মাধ্যমে সামাজিক সমস্যাগুলো সমাধান করে আসছে ফায়েজ বেলালের প্রতিষ্ঠিত এই উদ্যোগ। বিগত ৮ বছরে বিওয়াইএস’র নানা কার্যক্রমের অংশ হয়েছেন প্রায় ১০ লাখ মানুষ। বর্তমানে বরিশাল, ঢাকা এবং রংপুর বিভাগের প্রায় ১২টি জেলায় কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

ফায়েজ বেলাল বলেন, ‘আমাদের দেশের অনেকেই বলেন বিকেন্দ্রীকরণ করা উচিত। বিওয়াইএস সেটা করে দেখিয়েছে। বরিশালের তরুণদের হাত ধরে শুরু হওয়া ছোট্ট সংগঠনটি আজ দক্ষিণাঞ্চলের সর্ববৃহৎ তরুণ সংগঠন হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ এবং কিশোরীদের নেতৃত্ব বিকাশকে প্রাধান্য দিয়ে প্রায় ১০ লাখ মানুষের কাছে পৌঁছে গিয়েছি।’ 

ফায়েজ আরও বলেন, ‘আজকের এই সম্মননা বিওয়াইএস’র শুধু স্বীকৃতি দেয়নি, দিয়েছে মর্যাদাও।”  আমার এই অর্জন উৎসর্গ করছি জলবায়ু পরিবর্তন এলাকার হাজার হাজার নারী ও কিশোরীকে, যাদের প্রচেষ্টার কারণে বিওয়াইএস আজ এই সম্মাননা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।’ 

২০৩০ সালের মধ্যে টেকশই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রাকে সামনে রেখে ২ মিলিয়ন নারী এবং কিশোরীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং তাদের অধিকার রক্ষায় ভূমিকা রাখতে কাজ করে যাচ্ছে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের সবচেয়ে বড় এই সংগঠনটি। 

উল্লেখ্য, যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রিন্সেস ডায়ানা’র নামে তার দুই ছেলে প্রিন্স হ্যারি ও প্রিন্স উইলিয়াম ব্রিটিশ রাজপরিবারের পক্ষে এই পুরস্কারটি প্রবর্তন করেন। পুরস্কারটিকে ৯ থেকে ২৫ বছর বয়সী সামাজিক উদ্যোক্তাদের জন্য সবচেয়ে মর্যাদাকর পুরস্কার হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ১ জুলাই রাত ৮টায় এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে পুরস্কার ঘোষণা হয়।

ইত্তেফাক/মাহি