বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

জমে উঠেছে পশুর হাট, মাঝারি গরুর চাহিদা বেশি

আপডেট : ০৮ জুলাই ২০২২, ১৮:২১

পবিত্র ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে রাজধানীর পশু হাটগুলো জমে উঠেছে। এবার স্থায়ী-অস্থায়ী মিলে রাজধানীতে ১৮টি পশুর হাট বসেছে।

সংশ্লিষ্ট ক্রেতা-বিক্রেতারা বলছেন, ঈদের মাত্র একদিন বাকি থাকায় আজ সর্বোচ্চ সংখ্যক ক্রেতা কোরবানির পশু কিনে বাড়ি ফিরছেন।

রাজধানীর গাবতলী পশুর হাটে ছোট-বড় নানা ধরনের নানা জাতের গরু উঠেছে। ক্রেতারা আসছেন, দেখছেন, কথা বলছেন, দামাদামি করে গরু কিনে ফিরছেন। তবে বেশির ভাগ ক্রেতার চাহিদা মাঝারি ধরনের গরু।

কোরবানির জন্য গরু কিনে নিয়ে যাচ্ছেন এক ব্যক্তি । ফোকাস বাংলা

উত্তরার ১৭ নম্বর সেক্টরের বৃন্দাবন ও আশিয়ান সিটিতে বসা হাট দুটিতেও কোরবানির জন্য পর্যাপ্ত পশুর উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। আর ক্রেতাদের উপস্থিতিও কম নয়।

ক্রেতারা তাদের সাধ্যমত দামে পছন্দের পশুটি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। বগুড়ার নবাব ও লাট বাহাদুর নামে দুটি বড় জাতের গরু উত্তরার হাটে আনা হয়েছে। দুটির দাম চাওয়া হয়েছে ১৬ লাখ টাকা।

পশুর হাটে আসা অধিকাংশ ক্রেতাদের পছন্দ স্থানীয়ভাবে খামারে লালন-পালন করা দেশি গরু। অন্যদিকে এবার অনেক মানুষ অনলাইনে কোরবানির পশু ঘরে বসেই কিনতে পারছেন। দরদামে বনিবনা হয়ে গেলেই মোবাইল অথবা অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে পছন্দসই পশু কিনে ফেলছেন।

কমলাপুর হাটে বিক্রির জন্য নিয়ে আসা গরু।

রাজধানীর পশুর হাটগুলোতে সরেজমিনে দেখা যায়, ঈদের মাত্র একদিন আগে গরু-ছাগল কেনাবেচা জমে উঠেছে। মাঝারি আকৃতির গরুর চাহিদা একটু বেশি। তবে হাটে বড় গরুর সংখ্যাও একেবারে কম নয়। দাম একটু বেশি।

বগুড়ার শেরপুর উপজেলা থেকে ১১টি গরু নিয়ে গাবতলী বাজারে এসেছে গরু ব্যবসায়ী হাজী বেলায়েত হোসেন। তিনি জানান, নিজের পালা গরু নিয়া আসছি। এই গরুগুলা কয়েক বছর আগে কিনছিলাম। এর মধ্যে ২টা গরু ১২ লাখ টাকায় বিক্রির আশা আছে। 

গাবতলী বাজারে গরু কিনতে আসা ক্রেতা ইব্রাহিম আলী জানান, এবার গরুর দাম বেশি দেখছি। বাজেটের বাইরে তো কেনা সম্ভব নয়, তাই ঘুরে ঘুরে দেখছি।

ইত্তেফাক/ইউবি