বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

চবিছাত্রী হেনস্তায় আরও ৪ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২২, ২০:২৬

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই ছাত্রীকে হেনস্তার ঘটনায় চার শিক্ষার্থীকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। যৌন নিপীড়ন সেলে জমা হওয়া অপর ২ ঘটনায় বন ও পরিবেশবিদ্যা ইন্সটিটিউটের শিক্ষক ও রসায়ন বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে সতর্ক করা হয়েছে। 

সোমবার উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। বহিষ্কৃতরা হলো- ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের জান্নাতুল ইসলাম রুবেল, দর্শন বিভাগের ইমন আহম্মেদ ও রাকিব হাসান রাজু এবং আরবি বিভাগের জুনায়েদ আহমেদ। চারজনই ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী এবং শাখা ছাত্রলীগের উপগ্রুপ সিএফসির কর্মী।

সম্প্রতি ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় ভুক্তভোগী ভুল তথ্য দেওয়ায় তদন্তে দেরি হয়েছে বলে জানান প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ভুক্তভোগী ছাত্রী ঘটনাস্থল সম্পর্কে তথ্য দিয়েছিল। আমরা সময় এবং ঘটনাস্থলের মধ্যে কোনো যোগসূত্র পাচ্ছিলাম না। পরে ওই ছাত্রীকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন- তিনি রাত ১০টায় মূলত ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের দক্ষিণ পাশে পুকুরের বাম পাশের বাগানের সরু রাস্তার খোলা জায়গায় ছিল। সঙ্গে তার বন্ধুও ছিল। এত রাতে ওখানে কেন সেটার জন্য বকা দিতে পারি ভেবে তথ্য গোপন করেছিল।

এদিকে, ছাত্রী হেনস্তার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার, উপ-উপাচার্য বেনু কুমার দে, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এসএম মনিরুল মনিরুল হাসান ও প্রক্টর ড. রবিউল হাসান চৌধুরী। 

গত ১৭ জুলাই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন ও আপত্তিকর ভিডিও ধারণের প্রতিবাদে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় এ পর্যন্ত ২ চবি শিক্ষার্থীসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। গ্রেফতার ২ চবি শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/ইউবি