বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

আপত্তিকর চ্যাটিংয়ের ফাঁদে ফেলে অর্থ আত্মসাতকারী যুবক গ্রেফতার

আপডেট : ২৬ জুলাই ২০২২, ১৯:২৩

বিভিন্ন নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলতেন সাদ্দাম হোসেন ওরফে রিজভী নামে এক যুবক। এরপর ওই ভুয়া আইডি থেকে বিভিন্ন ব্যক্তিকে আপত্তিকর ও কুরুচিপূর্ণ ছবি ভিডিও ও বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাব দিতেন। যদি কেউ তার প্রস্তাবে রাজি হতেন তাহলে মেসেঞ্জারের মাধ্যমে বিভিন্ন আপত্তিকর টাইপ টেক্সট/ছবি দেওয়া-নেওয়া করতেন। পরবর্তীতে ওই ব্যক্তিকে মেসেঞ্জারের চ্যাটিং ফাঁস করে দেওয়ার ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে নিতেন। কেউ একবার টাকা দিলেও তার কাছে পুনরায় টাকা চাওয়া হতো।

এভাবে শত শত মানুষকে ফাঁদে ফেলার পর গ্রেফতার হয়েছেন সাদ্দাম হোসেন। বনানী থানায় দায়ের হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি মামলার তদন্তে নেমে গত সোমবার চট্টগ্রামের খুলশী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। একই সঙ্গে ভুয়া নামে পাঁচটি ফেসবুক আইডি পাওয়া যায়।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মোহাম্মদ তারেক বিন রশিদ জানান, এই প্রতারক বিভিন্ন নামে-বেনামে ফেসবুক আইডি খুলে ব্ল্যাকমেইল করার উদ্দেশ্যে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রবীণ রাজনৈতিক ব্যক্তিকে বেশ কিছুদিন ধরে অশ্লীল ছবি ও বিভিন্ন ধরনের আপত্তিকর ও কু-রুচিপূর্ণ কন্টেন্ট পাঠায়। ভুক্তভোগী ব্যক্তি তাকে বিভিন্নভাবে নিষেধ করার পরেও গ্রেফতার রিজভী অনবরত অশ্লীল ছবি ও বিভিন্ন বাজে কন্টেন্ট পাঠাচ্ছিলো।

এর ঘটনার পর থানায় মামলা করেন ওই ভুক্তভোগী। গ্রেফতার হওয়া প্রতারকের মোবাইল ও ফেসবুক মেসেঞ্জারের চ্যাটিং হিস্ট্রি পর্যালোচনা করে দেখা যায়, এই সাইবার প্রতারক শত শত লোকের সঙ্গে ভুয়া আইডি দিয়ে আপত্তিকর চ্যাটিং করেছে ও বিভিন্ন কৌশলে তাদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। সাদ্দাম হোসেন ওরফে রিজভীর সঙ্গে আরও কেউ জড়িত আছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি