বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মুদ্রাস্ফীতির সর্বোচ্চ পর্যায়ে জার্মানি: আইএফও

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২২, ১৯:৫৩

ইনস্টিটিউট ফর ইকনমিক রিসার্চের মতে, জার্মানির মূল্যস্ফীতি বছরের বাকি অংশে আবার কমতে শুরু করবে। তবে গবেষকরা সতর্ক করেছেন যে খাবারের দাম এখনো বাড়তে পারে। 

শীর্ষস্থানীয় এই অর্থনৈতিক গবেষণা ইনস্টিটিউট বৃহস্পতিবার জানিয়েছে,কয়েক মাসের মুদ্রাস্ফীতির পর ২০২২ সালের দ্বিতীয়ার্ধে জার্মানিতে ভোগ্যপণ্যের দাম আবার কমতে পারে।

আইএফও ইনস্টিটিউট তার সর্বশেষ সমীক্ষার উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছে, পরের ত্রৈমাসিকে দাম বাড়াতে ইচ্ছুক কোম্পানির সংখ্যা চলমান তৃতীয় মাসে কমেছে।

আইএফও-র বিজনেস সাইকেল অ্যানালাইসিস অ্যান্ড ফোরকাস্টের প্রধান, টিমো ভোলমারশেওয়েসার বলেন, ‘‘দাম বাড়তে পারে, কিন্তু কমবেও। এর মানে মুদ্রাস্ফীতি সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে গেছে এবং বছরের দ্বিতীয়ার্ধে কমে যাবে।'' 

আইএফও আর কী বলেছে?

ভোলমারশেওয়েসার বলেন, ব্যবসার দামে যে প্রত্যাশা থাকে, তা ভোক্তার মূল্যে প্রতিফলিত হতে কয়েক মাস সময় নেয়। তার কথায়, নির্মাণ খাত এবং শিল্পের ক্ষেত্রে প্রত্যাশিত এই দাম কমেছে।

তবে আইএফও বলছে, ভোক্তাদের সরাসরি প্রভাবিত করে, অর্থাৎ আতিথেয়তা (হসপিটালিটি), পর্যটন, সংস্কৃতি এবং বিনোদনের মতো খাতে নেতিবাচক প্রভাব আরো বেশি পড়তে পারে।

আইএফও বলছে, একটি বড় ব্যতিক্রম হলো ‘ফুড রিটেল', যেখানে মূল্যস্ফীতি বন্ধের বিষয়টি চোখে পড়েনি। তবে একটি  জরিপে সমস্ত কোম্পানি বলেছে, তারা দাম বাড়াতে চায়।

জুলাই মাসে জার্মানির মুদ্রাস্ফীতি পৌঁছেছে সাত দশমিক ছয় শতাংশে। 

ইত্তেফাক/এসআর