মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

টেলিটকের ফাইভ-জি স্থগিত

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২২, ১৪:০৭

ব্যয় সংকোচন নীতিতে টেলিটকের ফাইভ জি প্রকল্প স্থগিত করার নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (২ আগস্ট) সকালে একনেক সভায় তিনি এ নির্দেশ দিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, টেলিটকের ফাইভ-জি প্রকল্প এখনই দরকার নেই, আগে দেশের সব জায়গায় মোবাইল ফোনের ফোর-জি সেবা নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) সকালে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় একনেক চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যোগ দেন। তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় মোট ৭টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে খরচ হবে ২ হাজার ৭ কোটি টাকা।

ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় বাণিজ্যিকভাবে ফাইভ-জি প্রযুক্তি চালু করতে যাচ্ছে টেলিটক। প্রকল্পটি ২৩৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়ন করতে চাই টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড। প্রকল্পের ৮০ শতাংশ ইক্যুইপমেন্ট বিদেশ থেকে ডলার দিয়ে কিনতে হবে।

একনেক সভায় প্রকল্পটি চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। তবে ব্যয় সংকোচনের জন্য প্রকল্পটি একনেক সভায় অনুমোদন না দিয়ে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, যেহেতু সরকার কৃচ্ছতা সাধন করছে এবং টেলিটকের ফাইভ-জি প্রকল্পের বড় অংশই আমদানি নির্ভর। তাই ডলার ব্যবহারের ওপর চাপ কমাতেই প্রকল্পটি বাদ দেয়া হয়েছে। আর আপাতত দেশে ফাইভ জি কাভারেজের চেয়ে ফোর-জির পরিধি বাড়ানো জরুরি। সেই আঙ্গিকে মোবাইল অপারেটরদের কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর।

ইত্তেফাক/কেকে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ফাইভ জি নিলাম: সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকার তরঙ্গ কিনলো ৪ অপারেটর

ফাইভ-জি’র নিলাম আজ

লাইসেন্স পাচ্ছে আরও ৭৪টি আইএসপি

মেয়াদ আনলিমিটেড, ডাটা থাকলেই ব্যবহার করা যাবে ইন্টারনেট

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ইউক্রেনের পাশে ইলন মাস্ক, চালু করলেন স্টারলিঙ্ক

দুর্গম ৬১৭ ইউনিয়নে ইন্টারনেট নিশ্চিত করবে ‘কানেক্টেড বাংলাদেশ’

২০২৫ সালের মধ্যে প্রতিটি গ্রাম ফাইবার অপটিক্যাল ক্যাবলে যুক্ত হবে

ফাইভ জি’র যুগে বাংলাদেশ